জ্যাকুইলিন ফার্নান্দেজকে ফের জিজ্ঞাসাবাদ

জ্যাকুইলিন ফার্নান্দেজ

গত ৫ ডিসেম্বর একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে দুবাইয়ে যাচ্ছিলেন শ্রীলঙ্কান বংশোদ্ভূত বলিউড তারকা জ্যাকুইলিন ফার্নান্দেজ। কিন্তু মুম্বাই বিমানবন্দরেই তাকে আটকে দেয় ভারতীয় আইন প্রয়োগকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। তাকে জানানো হয়, ২০০ কোটি টাকার প্রতারণার মামলায় অভিযুক্ত সুকেশ চন্দ্রশেখরের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে তার বিরুদ্ধে লুকআউট নোটিস জারি করা হয়েছে। তবে কিছু সময় জিজ্ঞাসাবাদের পর তাকে বিমানবন্দর থেকে ফিরে যাওয়ার অনুমতি দেয়া হয়।

তবে প্রতারণা মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আগামী ৮ ডিসেম্বর জ্যাকুইলিনকে আবারো দিল্লি ডেকে পাঠিয়েছে ইডি। এর আগে গত অক্টোবরেও সুকেশের কর্মকাণ্ডের সঙ্গে তার সম্পর্ক প্রসঙ্গে জানতে তাকে দুইবার তলব করা হয়েছিল।

আদালতে ইডির দাখিল করা চার্জশিটের বরাতে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা জানায়, এই বছরের শুরুর দিকে তাদের কথোপকথন শুরু হয়। তখন থেকে সুকেশ জ্যাকুইলিনকে চারটি পার্সি বিড়াল – যার একটির মূল্য ৯ লক্ষ টাকা, ৫২ লক্ষ টাকার একটি ঘোড়া, অলংকার সহ মোট ১০ কোটি টাকার উপহার পাঠান। সুকেশের সঙ্গে জ্যাকুইলিনের ঘনিষ্ঠ সম্পর্কেরও প্রমাণ পাওয়া গেছে। ইডির দাবি, জ্যাকুইলিনের জন্য ব্যক্তিগত বিমানের ব্যবস্থাও করে দিয়েছিলেন সুকেশ, আর অভিনেত্রীর পরিবারকে একাধিক বার আর্থিক সহায়তাও দিয়েছেন।

এছাড়া আরেক বলিউড তারকা নোরা ফতেহিকেও দামি গাড়ি উপহার দিয়েছেন বলে দাবি করেন সুকেশ। ইডি ধারণা করছে, তার অর্থের উৎস জেনে ফেলায় জ্যাকুইলিন ও নোরা দুজনকেই তিনি উপহার দিয়ে খুশি রাখতে চেয়েছিলেন।

সুকেশের বিরুদ্ধে অভিযোগ, স্ত্রী লিনা পলের সহায়তায় তিনি এক ওষুধ সংস্থার প্রাক্তন মালিক শিবেন্দ্র সিংহ ও মালবেন্দ্র সিংহের পরিবারের সঙ্গে ২০০ কোটি টাকার প্রতারণা করেছিলেন। এই মামলায় দম্পতিকে গ্রেফতার করা হয়।

এমন আরো সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

fifteen − 9 =

সর্বশেষ বিনোদন