‘মানি হাইস্ট’-এর রোমাঞ্চকর পরিণতি

২০১৭ সালে শুরু হয় অ্যালেক্স পিনা নির্মিত স্প্যানিশ সিরিজ ‘লা কাসা দে পাপেল’। স্প্যানিশ টিভি অ্যান্টেনা থ্রিতে প্রচারিত হওয়ার পর ভিডিও স্ট্রিমিং প্লাটফর্ম নেটফ্লিক্স সিরিজটির স্বত্ব কিনে নেয়। ইংরেজিতে ডাবিং করে ‘মানি হাইস্ট’ নামে মুক্তি দেয়ার পর বিশ্বজুড়ে তুমুল জনপ্রিয়তা পায় সিরিজটি। দীর্ঘদিন নেটফ্লিক্সের সবচেয়ে বেশি দেখা সিরিজের তালিকায় শীর্ষস্থান ধরে রাখে। এতটাই জনপ্রিয়তা পায় যে সিরিজটির একটি সিজন সম্প্রচারের দিন ভারতের গোটা একটি অফিসে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছিলো। মাত্র দুই সিজনের পরিকল্পনা নিয়ে শুরু সিরিজটি অবশেষে পঞ্চম সিজনে এসে শেষ হচ্ছে। শেষ সিজনটিকে দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে। তারই দ্বিতীয় ভাগ গতকাল (৩ ডিসেম্বর) মুক্তি পেয়েছে। এই ভাগে থাকছে পাঁচটি পর্ব।

‘মানি হাইস্ট’ সিরিজের টিজার ও ট্রেলারেও এই সমাপ্তির ইঙ্গিত পাওয়া গেছে। সিরিজের শুরুতে স্পেনের জাতীয় টাঁকশাল থেকে টাকা ছাপিয়ে নেয়ার অভিযানে নেমেছিলো কেন্দ্রীয় চরিত্র প্রফেসর ও তার দল। কিন্তু গোটা বিষয়টি ঘোলাটে হয়ে পড়ে, পুলিশের পর ক্রমে জড়িয়ে পড়ে সেনাবাহিনীও। টিজারে প্রফেসর বলছেন, “শেষ কয়েক ঘণ্টায় আমি খুব গুরুত্বপূর্ণ কয়েকজনকে হারিয়েছি। এই ডাকাতির জন্য আমি আর কাউকে হারাতে পারবো না।’’

ট্রেলারে দেখা যায়, একটি লাল গাড়িকে ঘিরে ধরেছে মানুষ, গাড়ির রিয়ার ভিউ মিররে প্রফেসরকে দেখা যাচ্ছে। সঙ্গীদের উদ্ধার করতে সে নিজে গাড়ি চালিয়ে ব্যাংক অব স্পেনে পৌঁছায়। ওদিকে রিও, ডেনভার, স্টকহম ও লিসবন সেনাবাহিনীর জিম্মায়। ‘মানি হাইস্ট’ সিরিজের পঞ্চম সিজন নিয়ে নির্মাতা পিনা এক বিবৃতিতে বলেছিলেন, “পঞ্চম মৌসুমের প্রথম ভাগে আমরা সিরিজটিকে আরও চাঞ্চল্যকর ও আক্রমণাত্মক করে তুলেছি।’’ গত ৩ সেপ্টেম্বর পঞ্চম সিজনের প্রথম ভাগ নেটফ্লিক্সে মুক্তি পায়।

এমন আরো সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

eighteen − seven =

সর্বশেষ বিনোদন