সেন্সর না পেয়ে ইউটিউবে ‘নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প’

২০১৪ সালের আগস্টে ঢালিউড তারকা সিমলাকে নিয়ে ‘নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প’ চলচ্চিত্রটি নির্মাণ করেন রুবেল আনুশ। সেন্সর বোর্ডে চলচ্চিত্রটি জমা দেয়া হলে সেটি দেশের প্রেক্ষাগৃহে ‘প্রদর্শন অযোগ্য’ বলে সিদ্ধান্ত আসে। বোর্ডের নির্দেশনা অনুযায়ী সংশোধনের পর সম্প্রতি আবারও ছাড়পত্রের জন্য পাঠানো হয়েছিলো। চলচ্চিত্রটির নতুন নামও দেয়া হয় – ‘প্রেমকাহন’। কিন্তু চলচ্চিত্রটির কাহিনী ও দৃশ্য সহ বেশ কিছু বিষয়ে আপত্তি জানিয়ে ২ নভেম্বর আবারও একে প্রদর্শন অযোগ্য ঘোষণা করা হয়।
‘প্রদর্শন অযোগ্য’ ঘোষিত হওয়ার ৩০ দিনের মধ্যে আপিলের সুযোগ থাকলেও নির্মাতা আনুশ ইউটিউবে ‘নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প’ নামেই চলচ্চিত্রটি মুক্তি দিয়েছেন। আজ (২৫ নভেম্বর) লাইভ রেডিও নামের ইউটিউব চ্যানেলে এক ঘণ্টা বিশ মিনিট দৈর্ঘ্যের চলচ্চিত্রটি মুক্তি পায়। গতকাল (২৪ নভেম্বর) ইউটিউবে চলচ্চিত্রটির টিজার প্রকাশিত হয়েছে।
সত্য ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত ‘নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প’ চলচ্চিত্রে ৩৮ বছর বয়সী এক নারীর সঙ্গে প্রেমে জড়িয়ে পড়েন ১৮ বছরের এক তরুণ। সিমলার সঙ্গে জুটি বেঁধে এই চলচ্চিত্রে ‘ঘেটুপুত্র কমলা’ খ্যাত শিল্পী মামুন অভিনয় করেছেন। চলচ্চিত্রে আরও আছেন আবুল হায়াত, রুমাই নোভিয়া, পুলক, বাপ্পী, লাবণী, সাদিয়া, আলিফ, মুসা, টুটুল চৌধুরী, আফরিন সহ অনেকে।
১৯৯৯ সালে ‘ম্যাডাম ফুলি’ চলচ্চিত্র দিয়ে চলচ্চিত্র অঙ্গনে পা রাখেন সিমলা। এই চলচ্চিত্রের জন্য তিনি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও জেতেন। এরপর হাতেগোনা কয়েকটি চলচ্চিত্রে তিনি কাজ করেছেন।

এমন আরও সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

6 + five =

সর্বশেষ বিনোদন