সংশোধনের পরও ‘প্রদর্শন অযোগ্য’!

‘প্রেমকাহন’-এর একটি দৃশ্য

নাম পরিবর্তন করেও সেন্সর ছাড়পত্র পাচ্ছে না ঢালিউড তারকা সিমলা অভিনীত চলচ্চিত্র ‘প্রেমকাহন’। এটি দেশের প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শন উপযোগী নয় বলে সিনেমাটির সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের কাছে চিঠি পাঠাচ্ছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ড।

অনলাইন পোর্টাল বাংলা ট্রিবিউন জানায়, চলচ্চিত্রটির নাম প্রথমে দেয়া হয়েছিলো ‘নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প’। সেন্সর বোর্ডে চলচ্চিত্রটি জমা দেয়া হলে সেটি ‘প্রদর্শন অযোগ্য’ বলে সিদ্ধান্ত আসে। বোর্ডের নির্দেশনা অনুযায়ী সংশোধনের পর সম্প্রতি আবারও ছাড়পত্রের জন্য পাঠানো হয়েছিলো। চলচ্চিত্রটির নতুন নামও দেয়া হয় – ‘প্রেমকাহন’। কিন্তু চলচ্চিত্রটির কাহিনী ও দৃশ্য সহ বেশ কিছু বিষয়ে আপত্তি জানিয়ে আবারও একে প্রদর্শন অযোগ্য ঘোষণা করা হয়।

এই খবর নিশ্চিত করেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান মো. জসীম উদ্দিন। তিনি বলেন, ‘‘ছবিটি দেখার পর এবারও বোর্ড সদস্যরা এটাতে আপত্তি দিয়েছেন। ছবিটি ‘প্রদর্শন অযোগ্য’ বলে সবাই মন্তব্য দিয়েছেন।’’

অসম প্রেমের গল্পের ‘প্রেমকাহন’ চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করেছেন রুবেল আনুশ। চলচ্চিত্রে ৩৮ বছর বয়সী এক নারীর সঙ্গে প্রেমে জড়িয়ে পড়েন ১৮ বছরের এক তরুণ। সিমলার সঙ্গে জুটি বেঁধে এই চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন ‘ঘেটুপুত্র কমলা’ খ্যাত অভিনেতা মামুন। চলচ্চিত্রে আরও আছেন আবুল হায়াত, রুমাই নোভিয়া, পুলক, বাপ্পী, লাবণী, সাদিয়া, আলিফ, মুসা, টুটুল চৌধুরী, আফরিন সহ অনেকে। সত্য ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত চলচ্চিত্রটির শুটিং শুরু হয় ২০১৪ সালের আগস্টে।

১৯৯৯ সালে ‘ম্যাডাম ফুলি’ চলচ্চিত্র দিয়ে চলচ্চিত্র অঙ্গনে পা রাখেন সিমলা। এই চলচ্চিত্রের জন্য তিনি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও জেতেন। এরপর হাতেগোনা কয়েকটি চলচ্চিত্রে তিনি কাজ করেছেন।

এমন আরও সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

14 − six =

সর্বশেষ বিনোদন