বোজম্যানের নামে আর্টস কলেজ

প্রয়াত হলিউড অভিনেতা চ্যাডউইক বোজম্যানের নামে নিজেদের ফাইন আর্টস কলেজের নাম রাখল যুক্তরাষ্ট্রের হাওয়ার্ড বিশ্ববিদ্যালয়।

মারভেল কমিকস চরিত্র ‘ব্ল্যাক প্যান্থার’ খ্যাত চ্যাডউইক বোজম্যান ২০২০ সালে কোলন ক্যানসারে মারা যান। ২০০০ সালে যুক্তরাষ্ট্রের হাওয়ার্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে চলচ্চিত্র পরিচালনায় স্নাতক ডিগ্রি নিয়েছিলেন তিনি। শিল্পকলায় অবদান রাখায় বোজম্যানের সম্মানে নিজেদের সদ্য পুনঃপ্রতিষ্ঠিত ফাইন আর্টস কলেজের নাম রাখল এই বিশ্ববিদ্যালয়।

গত ১ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রেসিডেন্ট ওয়াইনি এ আই ফ্রেডেরিক জানান, ফাইন আর্টস কলেজ পুনঃপ্রতিষ্ঠায় গত বছর বেশ সহযোগিতা করেছিলেন বোজম্যান।

১৮৬৭ সালে প্রতিষ্ঠিত হাওয়ার্ড বিশ্ববিদ্যালয় কৃষ্ণাঙ্গদের জন্য প্রথম সারির একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হিসেবে পরিচিত। নব্বইয়ের দশকের শেষ দিকে অর্থনৈতিক কারণে ফাইন আর্টস কলেজকে আর্টস অ্যান্ড সায়েন্স কলেজের সঙ্গে একীভূত করা হয়। এই একত্রীকরণের বিরুদ্ধে ১৯৯৭ সালে শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদে ছিলেন বোজম্যানও।

২০১৮ সালে ফাইন আর্টস কলেজকে আবার আলাদা করে প্রতিষ্ঠার পরিকল্পনা শুরু হয়। এই বছরই বোজম্যান বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাবর্তন ভাষণে বলেছিলেন, “আমি আজ এখানে আসতে পেরেছি এই কারণে যে হাওয়ার্ড ইউনিভার্সিটির শিক্ষা আমাকে জ্যাকি রবিনসন, জেমস ব্রাউন, থারগুড মার্শাল ও টি’চালা চরিত্রে অভিনয়ের জন্য প্রস্তুত করেছে।“ এই চরিত্রগুলো বোজম্যানের যথাক্রমে ‘ফর্টি টু’ (২০১৩), ‘গেট অন আপ’ (২০১৪), ‘মার্শাল’ (২০১৭) এবং মারভেল স্টুডিওজের একাধিক সুপারহিরো চলচ্চিত্রের চরিত্র।

এছাড়াও চ্যাডউইক বোজম্যান ‘ম্যাসেজ ফ্রম দ্যা কিং’ (২০১৬), ‘টোয়েন্টি ওয়ান ব্রিজেস’ (২০১৯), ‘দ্যা ফাইভ ব্লাডস’ (২০২০) চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। মৃত্যুর আগে বোজম্যানের সর্বশেষ চলচ্চিত্র ‘মা রাইনি’জ ব্ল্যাক বটম’ (২০২০) ব্যাপকভাবে প্রশংসিত হয়, আর এর জন্য স্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড অ্যাওয়ার্ডসে সেরা অভিনেতার পুরস্কারে ভূষিত হন তিনি।

এমন আরও সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

four × 2 =

সর্বশেষ বিনোদন