ছবি শেয়ার করে সমালোচিত প্রসেনজিৎ

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছবি শেয়ার করে সমালোচনার মুখে পড়েছেন টলিউড তারকা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়।

২৬ আগস্ট মাদার তেরেসার ১১১তম জন্মদিনে তার সঙ্গে তোলা পুরোনো একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করেছিলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। এই ছবি প্রসঙ্গে সমালোচকদের দাবি, মূল ছবি থেকে প্রসেনজিৎ তার প্রাক্তন স্ত্রী দেবশ্রী রায় এবং পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী জ্যোতি বসুকে কেটে বাদ দিয়েছেন।

আলোচনা–সমালোচনার মুখে এবার আসল ছবিটি পোস্ট করে প্রসেনজিৎ লেখেন, “আমি সাধারণত ট্রলের জবাব দিই না। কিন্তু এইবার দেওয়াটা দরকারি মনে হলো। কারণ, আলোচ্য ছবিটা এমন কিছু মানুষকে জড়িয়ে, যাঁদের আমি ভীষণ সম্মান করি।“

প্রসেনজিৎ জানান, এই ছবি পোস্ট করার সঙ্গে রাজনৈতিক কোনো যোগসূত্র নেই। তিনি বলেন, “প্রথমত, আমি ছবিটি ক্রপ করিনি। এটা আমাকে পাঠানো (ফরোয়ার্ড) হয়েছিল। অনেক আগেই আমি ছবিটি পেয়েছিলাম। মাদার তেরেসার জন্মবার্ষিকীতে এটা শেয়ার করার কথা ভেবেছিলাম। দ্বিতীয়ত, মাদার তেরেসার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা ছাড়া সেই পোস্ট দেওয়ার পেছনে অন্য আর কোনো উদ্দেশ্য ছিল না। শেষ কথা, ট্রলে যেমনটা বলা হচ্ছে, তার বিপরীতে আমি আন্তরিকভাবে বিশ্বাস করি, রাজনৈতিক কোনো ব্যক্তির সঙ্গে কোনো ছবি কেউ শেয়ার করলে তার মানে এই না যে সে কোনো দলের সঙ্গে যুক্ত বা কোনো দলকে অপছন্দ করে এবং সে কারণেই আমি ছবিটির আনক্রপড সংস্করণ সংযোজন করছি।“

এই স্ট্যাটাসের পর প্রসেনজিতের পক্ষে-বিপক্ষে মন্তব্য করছেন অনেকেই।

স্ট্যাটাসের শেষদিকে প্রসেনজিৎ লিখেছেন, ‘খুব খারাপ একটা সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে দুনিয়া। আসুন, অপ্রয়োজনীয় বিদ্বেষ না ছড়িয়ে বরং দয়া ছড়াই।“

পূর্বের খবরগুলোবিয়ে করলেন রাফা
পরবর্তী খবরগুলোআবারও বিতর্কে নোবেল

এমন আরও সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

6 + four =

সর্বশেষ বিনোদন