তবুও অস্কার পাননি যারা

যুক্তরাষ্ট্রের একাডেমি অ্যাওয়ার্ড বা অস্কার কারা পান? তারাই তো—যারা অভিনয়শিল্পে অনন্য প্রতিভার স্বাক্ষর রাখেন। এমনটিই তো আমরা জানি। কিন্তু অস্কার দেয়া-নেয়া নিয়ে বিতর্কও কম নেই। অনেকে মনে করেন অস্কারের পেছনেও কাজ করে সূক্ষ্ম রাজনীতি। এটি দেয়ার ক্ষেত্রে বৈশ্বিক রাজনীতি নাকি বিশেষ ভূমিকা পালন করে। দেখা যায়, কিছুদিন অভিনয় করেই কেউ এই পুরস্কার পেয়ে যাচ্ছেন, আবার অনেকে বহু বছর ধরে নিজের সেরাটা দিয়েও এই পুরস্কারের মুখ দেখছেন না। ব্যাপারটা আসলে কি? সে এক দীর্ঘ আলোচনা ও গবেষণার বিষয়। এখন শুধু জেনে নিই এমন দশ গুণী অভিনয়শিল্পীর কথা—আজ পর্যন্ত যাদের হাতে অস্কার ওঠেনি। আপনি নাম শুনলে অবাক হতে পারেন—ধরে নিয়েছিলেন, তারা অস্কার পেয়েছেন। আসলে পাননি। এমন দশ জনের নাম তুলে ধরা হলো।

মেরিলিন মনরো

১. মেরিলিন মনরো
না, উনি অস্কার পাননি। বিশ্বের সবচেয়ে আলোচিত অভিনয়শিল্পী ও সেলিব্রেটি তিনি। পৃথিবীর কোণায় কোণায় তার নাম—সেই মার্কিন অভিনেত্রীর ভাগ্যেই কিনা জোটেনি এই পুরস্কার। অস্কার তো দূরের কথা কখনো মনোনয়নও পাননি মেরিলিন মনরো। ‘জেন্টলম্যান প্রেফার ব্লোন্ডেস’ (১৯৫৩), ‘হাও টু মেরি এ মিলিয়নিয়র’ (১৯৫৩) ও ‘সাম লাইক ইট হট’ (১৯৫৯) ইত্যাদি তার অভিনীত বিখ্যাত সিনেমা।

জিম কেরি

২. জিম কেরি
হলিউডের কমিডি সিনেমার প্রসঙ্গ উঠলে কানাডীয়-মার্কিন অভিনেতা জিম কেরির নাম চলে আসবেই। ১৯৮৪ সাল থেকে সিনেমায় কাজ করছেন কিন্তু অস্কার তো দূরের কথা অস্কারে জন্য মনোনয়নও পাননি এই অভিনেতা। ‘ব্যাটম্যান ফরেভার’, ‘মাস্ক’, ‘ম্যান অন দ্য মুন’, ‘ব্রুস অলমাইটি’, ‘ইয়েস ম্যান’ ইত্যাদি বহু সিনেমায় তিনি প্রতিভার স্বাক্ষর রেখেছেন।

টম ক্রুজ

৩. টম ক্রুজ
অ্যাকশন সিনেমা ছাড়াও টম অনেক ভিন্নধারার সিনেমায় অভিনয় করেছেন, সেসব সিনেমার জন্য তিনবার অস্কার মনোনয়নও পেয়েছেন, কিন্তু একবারো পাননি। এই মার্কিন অভিনেতার মনোনয়ন পাওয়া সিনেমাগুলো হলো, ‘বর্ন অন দ্য ফোর্থ অব জুলাই’, ‘ম্যাগনোলিয়া’ এবং ‘জেরি ম্যাগুয়ের’।

জনি ডেপ

৪. জনি ডেপ
মার্কিন অভিনেতা জনি ডেপ শেষবার অভিনয় করেছেন গতবছর মুক্তি পাওয়া ‘মিনামাতা’র মতো অনবদ্য সিনেমায়। তার শক্তিশালী অভিনয় পুরো সিনেমাটির ভিত্তি। দেখা যাক এবার ডেপ অস্কার পান কিনা। প্রায় চল্লিশ বছরের ক্যারিয়ারে একবারও অস্কার জোটেনি তার। তিনবার অবশ্য মনোনয়ন পেয়েছেন।

বেনেডিক্ট কাম্বারব্যাচ

৫. বেনেডিক্ট কাম্বারব্যাচ
‘দ্য ইমিটেশন গেম’ সিনেমার জন্য একবার মনোনয়ন পেলেও তার হাতে এখনো ওঠেনি অস্কার। অন্যান্য প্রায় সব পুরস্কারই এই ব্রিটিশ অভিনেতার ঝুলিতে আছে। নেই শুধু ওই অস্কার। মঞ্চের এই মানুষটি নানা ভূমিকায় সিনেমা ও টেলিভশনে অভিনয় করে নিজের এক অনন্য জায়গা তৈরি করে ফেলেছেন। ২০২০ সালে মুক্তি পায় তার অভিনীত ‘দ্য কুরিয়ার’ সিনেমা।

উইল স্মিথ

৬. উইল স্মিথ
চারবার গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড জিতেছেন, পাঁচবার গোল্ডেন গ্লোবে মনোনয়ন এবং দুবার অস্কারে মনোনয়ন পেয়েছেন। কিন্তু অস্কার পাননি একবারও। যদিও এই মার্কিন অভিনেতা যে ছবিতে হাত দিয়েছেন তাই হিট হয়েছে।

উইলেম ডেফো

৭. উইলেম ডেফো
এই মার্কিন অভিনেতা একাডেমি অ্যাওয়ার্ডের জন্য চার চারবার মনোনয়ন পেয়েছেন কিন্তু পেলেন না একবারও। ‘শ্যাডো অব দ্য ভ্যাম্পায়ার’, ‘দ্য ফ্লোরিডা প্রজেক্ট’, ‘দ্য হান্টার’, ‘দ্য লাইটহাউস’, ‘অটো ফোকাস’, ‘প্লাটুন’, ‘অ্যাট এটার্নিটি’স গেইট’ ইত্যাদি তার অভিনীত প্রশংসীত সিনেমা। স্পাইডরম্যানের সিনেমাগুলোতে খলনায়কের ভূমিকায় অভিনয় করেও জনপ্রিয়তা পেয়েছেন।

জেমস ম্যাকাঅ্যাভয়

৮. জেমস ম্যাকঅ্যাভয়
এই মার্কিন অভিনেতা বরাবরই বেছে বেছে সিনেমা করেন। এক্স-ম্যান ছাড়াও তার ঝুলিতে আছে ‘স্টেট অব প্লে’, ‘স্প্লিট’, ‘অ্যাটনমেন্ট’, ‘দ্য লাস্ট কিং অব স্কটল্যান্ড’, ‘ফিল্থ’, ‘দ্য রুলিং ক্লাস’-এর মতো আলোচিত সিনেমা। তিনিও আজ পর্যন্ত অস্কার অর্জন করতে পারেননি।

গ্লেন ক্লোজ

৯. গ্লেন ক্লোজ
‘দ্য ওয়ার্ল্ড অ্যাকোর্ডিং টু গাপ’ (১৯৮৩), ‘দ্য বিগ চিল’ (১৯৮৪), ‘দ্য নেচারাল’ (১৯৮৫), ‘ফাটাল অ্যাটট্রাক্শন’ (১৯৮৮), ‘ড্যানজেরাস লিয়াজোঁ’ (১৯৮৯), ‘অ্যালবার্ট নব্স’ (২০১২), ‘দ্য ওয়াইফ’ (২০১৯) এবং ‘হিলবিলি এলেজি’ (২০২০) —এই আটটি সিনেমার জন্য মার্কিন অভিনেত্রী গ্লেন ক্লোজ অস্কার মনোয়ন পেয়েছিলেন। কিন্তু মেলেনি একবারও।

স্যামুয়েল এল জ্যাকসন

১০. স্যামুয়েল এল জ্যাকসন
অবাক করা তথ্য—কিন্তু সত্যিই মার্কিন অভিনেতা স্যামুয়েল অস্কার পাননি। তবে এবছর ঘোষণা করা হয়েছে, তিনি নাকি এবার পাচ্ছেন সম্মানসূচক একাডেমি অ্যাওয়ার্ড বা অস্কার। ১৯৯৪ সালে ‘পাল্প ফিকশন’ সিনেমায় অভিনয়ের জন্য একবার অস্কার মনোনয়ন পেয়েছিলেন।

এমন আরও সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

3 × three =

সর্বশেষ বিনোদন