আসছে এশীয় সুপারহিরো ‘শ্যাং-চি’র পরের পর্ব

গত সেপ্টেম্বরে করোনা অতিমারি পরিস্থিতির মধ্যেই মুক্তি পেয়েছিল মার্ভেল স্টুডিওজের সুপারহিরো সিনেমা ‘শ্যাং-চি অ্যান্ড দ্য লেজেন্ড অফ দ্য টেন রিংস’। চীনা বংশোদ্ভূত কানাডিয়ান অভিনেতা সিমু লিউ অভিনীত এই চলচ্চিত্রটি ছিল এশিয়ান চরিত্রকে কেন্দ্রে রেখে মার্ভেলের নির্মিত প্রথম চলচ্চিত্র।

মুক্তির দিনই চলচ্চিত্রটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বক্স অফিসে ৯৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করে, আর ২০২১ সালে মুক্তি পাওয়া চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে শীর্ষস্থান বর্তমানে এরই দখলে। ‘শ্যাং-চি’ নির্মাতা ড্যানিয়েল ক্রেটনেরই হাতে এবার এর সিকুয়েল নির্মাণের ঘোষণা দিল মার্ভেল।

মার্ভেল স্টুডিওজের প্রেসিডেন্ট কেভিন ফাইগির বরাতে এই খবর নিশ্চিত করেছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম দ্য হলিউড রিপোর্টার। অতিমারির আগে মার্ভেল স্টুডিওজের সাম্প্রতিক প্রায় প্রতিটি চলচ্চিত্রই বক্স অফিসে এক বিলিয়ন ডলারের মাইলফলক স্পর্শ করেছিল। ১৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয়ে নির্মিত ‘শ্যাং-চি অ্যান্ড দ্য লেজেন্ড অফ দ্য টেন রিংস’ করোনা পরিস্থিতির মাঝেই ৪৩২ মিলিয়ন আয় করার পরও একে চলচ্চিত্রটির ব্যর্থতা বলে মন্তব্য করছিলেন অনেকেই।

এমনকি ডিজনি সিইও বব চ্যাপেক বলেছিলেন, প্রেক্ষাগৃহে ফেরার পথে ‘পরীক্ষামূলকভাবে’ চলচ্চিত্রটি মুক্তি দেয়া হয়েছে। সিকুয়েল নির্মাণের ঘোষণা আসার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে ঠাট্টাচ্ছলে এসব মন্তব্যের জবাব ছুঁড়ে দেন সিমু লিউ –“আমরা এমনই ব্যর্থ যে সিকুয়েলই পেয়ে গেলাম!”

নির্মাতা ক্রেটনের চলচ্চিত্র ‘শর্ট টার্ম টোয়েল্ভ’ দিয়েই হলিউড তারকা ব্রি লার্সনের উত্থান ঘটে। এছাড়াও ক্রেটন ‘আই অ্যাম নট আ হিপস্টার’, ‘দ্য গ্লাস ক্যাসল’ ও ‘জাস্ট মার্সি’ চলচ্চিত্রও পরিচালনা করেছেন। মার্ভেল ছাড়াও ভিডিও স্ট্রিমিং প্লাটফর্ম হুলুর সঙ্গে ‘অনিক্স কালেক্টিভ’ প্রকল্পেও তিনি কাজ করবেন, যাতে উপেক্ষিত জাতিসত্ত্বার হলিউড শিল্পীদের গল্প বলা হবে।

এমন আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ বিনোদন