জোলি ও পিটের লড়াই

এবার যৌথ মালিকানাধীন একটি আঙুরবাগান নিয়ে আইনি লড়াইয়ে জড়াতে যাচ্ছেন হলিউডের প্রাক্তন তারকা দম্পতি অ্যাঞ্জেলিনা জোলি ও ব্র্যাড পিট।
ফ্রান্সের কোর্রেনে ব্র্যাড পিট ও অ্যাঞ্জেলিনা জোলির শ্যাতো মিরাভাল নামে একটি ১৪০০ কোটি টাকা মূল্যমানের এস্টেইট ও আঙুরবাগান আছে। এর মালিকানা নিয়ে গত ২১ সেপ্টেম্বর জোলির বিরুদ্ধে মামলা করেছেন পিট। অভিযোগ, তার সঙ্গে কোনো ধরনের আলোচনা ছাড়াই বাগানের নিজের অংশ বিক্রি করে দিচ্ছিলেন জোলি।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য ডেইলি মেইল জানায়, শুরুতে শ্যাতো মিরাভালের ৪০ শতাংশ মালিক ছিলেন জোলি, আর পিটের ছিল ৬০ শতাংশ। ২০১৬ সালে বিচ্ছেদের কিছু আগে পিট আরও ১০ শতাংশ জোলিকে দিয়ে মালিকানা সমান সমান করে নেন। মামলার নথিপত্র অনুযায়ী, পিটকে না জানিয়েই জোলি নিজের অংশের শেয়ার বিক্রি করে দিতে উদ্যত হয়েছিলেন। নিয়মানুসারে এই ধরনের লেনদেনে শুরুতে অংশীদারকে জানানো বাধ্যতামূলক, যাতে অংশীদার ওই অংশ কিনে নিয়ে গোটা বাগানের মালিকানা নিতে পারেন। ব্রাডের আইনজীবী আরও বলছেন, গত চার বছর বার্ষিক হিসাব-নিকাশ ও ব্যবস্থাপনায় দেরি করে আসছে জোলির প্রতিষ্ঠান।

১১ বছর একসঙ্গে থাকার পর ২০১৬ সালে পিটের সঙ্গে বিচ্ছেদের আবেদন করেন জোলি, যা ২০১৯ সালে চূড়ান্ত হয়। তাদের ছয় সন্তান ১৯ বছরের ম্যাডক্স, ১৭ বছরের প্যাক্স, ১৬ বছরের জাহারা, ১৫ বছরের শিলো এবং ১২ বছরের যমজ ভিভিয়েন ও নক্স। সন্তানদের অভিভাবকত্ব নিয়ে দুজন একটি মামলা লড়ে যাচ্ছেন। এই বছরের মে মাসে আদালত পিটকে সন্তানদের জয়েন্ট কাস্টডি দিলেও পরের মাসেই তা বাতিল করা হয়। এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ক্যালিফোর্নিয়া সুপ্রিম কোর্টে যাচ্ছেন পিট।

এমন আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ বিনোদন