যুক্তরাষ্ট্রের ‘কাভারিং ক্লাইমেট নাউ’ পুরস্কার পেলেন‌ সুদীপ্ত সালাম

ভোলায় ‘সরদার’ জনগোষ্ঠীর বসবাস নৌকায়। জমি নেই, স্থায়ী ঠিকানা নেই, ঝড়-বৃষ্টি-সুখ-দুঃখ নিয়ে একেকটি নৌকায় তাদের একেকটি পরিবার। মৎস্যজীবী এই মানুষদের জীবনের গল্প আলোকচিত্রে তুলে ধরেন আলোকচিত্রী, সাংবাদিক ও লেখক সুদীপ্ত সালাম। আর সেই ছবির গল্পের জন্য পেলেন আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি। ২০২২ সালের ‘কাভারিং ক্লাইমেট নাউ জার্নালিজম অ্যাওয়ার্ডস’-এর আলোকচিত্র বিভাগে তিনি অনারেবল মেনশন পুরস্কার পেয়েছেন।

দ্য থার্ড পোল নামের বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থার জন্য ২০২১ সালের শুরুর দিকে ভোলায় সরদার জনগোষ্ঠীর মানুষের ছবিগুলো তুলেছিলেন সুদীপ্ত সালাম। সুবিধাবঞ্চিত মানুষের গল্প বলার মধ্যে আনন্দ খুঁজে পান তিনি। বললেন, ‘এ ধরনের প্রান্তিক মানুষদের গল্প তুলে ধরতে চাই। ভালো লাগার কাজটি যখন স্বীকৃতি পায়, তখন আরও বেশি ভালো লাগে।’

বিশ্বের পাঁচ শতাধিক সংবাদমাধ্যমের সম্মিলিত প্রয়াস এই কাভারিং ক্লাইমেট নাউ অ্যাওয়ার্ডস। পুরস্কারের জন্য এ বছর বিশ্বের ৬৫টি দেশ থেকে জলবায়ু পরিবর্তনবিষয়ক ৯ শতাধিক সংবাদকর্ম জমা পড়ে। চূড়ান্ত মনোনীতদের মধ্যে ছিলেন দ্য নিউ ইয়র্কার, ব্লুমবার্গ, এএফপি, দ্য গার্ডিয়ান, রয়টার্স, বাজফিড, আল-জাজিরা, চ্যানেল ফোর এবং সায়েন্টিফিক আমেরিকানের মতো বিখ্যাত সংবাদমাধ্যমের কর্মীরা।

লেখা, ছবি, ভিডিওসহ ১৮টি বিভাগে বিজয়ী নির্বাচনে বিচারকের ভূমিকায় ছিলেন বিশ্বের স্বনামধন্য ৯০ জন সংবাদকর্মী। এ বছর চূড়ান্ত পর্বের জন্য মনোনীত হয়েছেন ৬৮ জন সাংবাদিক। পাশাপাশি ২০ জন পেয়েছেন সম্মানজনক স্বীকৃতি।

কাভারিং ক্লাইমেট নাউ পুরস্কারের বিচার-প্রক্রিয়ার প্রধান এবং কলাম্বিয়া জার্নালিজম রিভিউয়ের প্রকাশক কাইল পোপ এক বিবৃতিতে বলেন, ‘গত বছরের তুলনায় এবার ৫০ শতাংশ বেশি মনোনয়ন জমা পড়েছে। মনোনয়নের এই আধিক্যে বোঝা যায় সংবাদমাধ্যমগুলো এখন বুঝতে শুরু করেছে জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে এখন আগের চেয়ে বেশি কাভারেজ দেয়া প্রয়োজন।’ চূড়ান্ত বিজয়ী এবং ‘ক্লাইমেট জার্নালিস্ট অব দ্য ইয়ার’ নির্বাচন করা হবে আগামী মাসে।

এমন আরো সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

one × five =

সর্বশেষ বিনোদন