আমিরের চোখে সালমান কেন ‘বিবেকহীন’ 

১৯৯৪ সালে ‘আন্দাজ আপনা আপনা’ সিনেমায় অভিনয় করেছিলেন বলিউডের দুই তারকা আমির খান ও সালমান খান। শোনা যায়, সিনেমায় অভিনয়ের সময় দুজনকে বন্ধু মনে হলেও—অফ-স্ক্রিনে তারা একে অপরের সঙ্গে কথা বলতেন না। পরে একটি টিভি অনুষ্ঠানে আমির খান নিজেই জানিয়েছিলেন যে, সালমানের সাথে সিনেমা করতে গিয়ে নাকি ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতা হয়েছিল তার।

২০১৩ সালে ‘কফি উইথ করণ’ অনুষ্ঠানে আমির খান জানিয়েছিলেন যে, “ ‘আন্দাজ আপনা আপনা’ সিনেমা করার সময় সালমানকে নিয়ে বেজায় খারাপ অভিজ্ঞতা হয়েছিল। তখন ওকে একেবারেই ভালো লাগেনি আমার। সালমানকে বুদ্ধি-বিবেকহীন এবং রূঢ় বলে মনে হয়েছিল। ওর সঙ্গে কাজ করার পর মনে হয়েছিল, দূরে থাকাই ভালো বাবা!”

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস-এর খবর অনুযায়ী, এই সিনেমা মুক্তির দশ বছর পর, আমিরের বিবাহ-বিচ্ছেদের সময় সেই ‘বুদ্ধি-বিবেকহীন’ সালমানই ছুটে এসেছিলেন। ফলে আমির ও সালমানের মধ্যকার বরফ গলতে শুরু করে। উল্লেখ্য, ২০০৪ সালে আমির ও তার প্রথম স্ত্রী রিনা দত্তের বিয়েটা ভেঙে যায়।

এই ঘটনা প্রসঙ্গে বলিউডের ‘মিস্টার পারফেকশনিস্ট’ আমির জানান, “আমার তখন খুব খারাপ সময় চলছে। রিনার সাথে ডিভোর্সের পর সালমান আমার জীবনে বন্ধুর মতো হাত বাড়িয়ে দেয়। নিজেই ফোন করে আমার সাথে দেখা করার ইচ্ছে প্রকাশ করেছিল। কথা অনুযায়ী আমরা দেখা করলাম। সেই সময় থেকেই সালমানের সঙ্গে বন্ধুত্বের শুরু। তারপর সময়ের সাথে সাথে সেটা আরো গভীর হয়েছে।”

পরবর্তীতে একে-অপরের সিনেমার প্রচারণায়ও নেমেছেন আমির খান ও সালমান খান। তবে তাদের দুজনকে এক সঙ্গে আর কোনো সিনেমায় দেখা যায়নি।

এমন আরো সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

12 − 10 =

সর্বশেষ বিনোদন