জায়েদ-নিপুন দ্বন্দ্ব, আদালতের নতুন নির্দেশনা

জায়েদ ও নিপুন। ছবি : সংগৃহীত

গত সোমবার (৭ ফেব্রুয়ারি) জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিলের সিদ্ধান্ত স্থগিত করে হাইকোর্ট যে আদেশ দিয়েছিলেন তার বিরুদ্ধে আপিল করেন চিত্রনায়িকা নিপুন। বুধবার (৯ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে নিপুনের আপিল শুনানি শেষে জায়েদ খানের পক্ষে দেয়া হাইকোর্টের সেই আদেশ স্থগিত করেন সুপ্রিম কোর্টের চেম্বার আদালত।

একসঙ্গে আগামী ১৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সাধারণ সম্পাদক পদে জায়েদ-নিপুনের কেউই দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না বলে আদেশ দেন আদালত।
সময় সংবাদ সূত্রে জানা গেছে, আদালতে চিত্রনায়ক জায়েদ খানের পক্ষে আজ শুনানিতে অংশ নেন অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, অ্যাডভোকেট আহসানুল করিম। আরো ছিলেন অ্যাডভোকেট নাহিদ সুলতানা যুথি। চিত্রনায়িকা নিপুনের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ ও ব্যারিস্টার মো. মোস্তাফিজুর রহমান খান।

উল্লেখ্য, ২৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২২-২৪ মেয়াদের নির্বাচনের প্রাথমিক ফলে সাধারণ সম্পাদক পদে জায়েদ খানকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। তবে তার বিরুদ্ধে টাকা দিয়ে ভোট কেনাসহ নির্বাচনকে প্রভাবিত করার অভিযোগ আনেন নিপুন।

আবেদনের প্রেক্ষিতে গত ৫ ফেব্রুয়ারি এফডিসিতে সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচনের আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ নিয়ে বোর্ডের সভা বসে। সেখানে জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিলের ঘোষণা দেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনের আপিল বোর্ড।  নিপুনকে সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করা হয় ।

এরপর আপিল বোর্ডের এমন সিদ্ধান্তের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে আপিল করেন জায়েদ খান। এই আবেদনের প্রেক্ষিতে সোমবার (৭ ফেব্রুয়ারি) বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চে এ আবেদনের শুনানি শেষে জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিলের সিদ্ধান্ত স্থগিত করেন হাইকোর্ট। প্রার্থিতা বাতিলের সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ হবে না, তা জানতে চেয়েও এক সপ্তাহের রুল জারি করা হয়। পাশাপাশি স্থগিত করা হয় নিপুনের সাধারণ সম্পাদক পদ।

এমন আরো সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

fifteen − thirteen =

সর্বশেষ বিনোদন