চীনে বিপাকে ‘জাঙ্গল ক্রুজ’

জুলাইয়ের শেষেই বিশ্বের বেশিরভাগ দেশে এবং ডিজনি প্লাস প্লাটফর্মে মুক্তি পেয়েছিলো ডিজনির ‘জাঙ্গল ক্রুজ’। মুক্তির প্রথম দিন মার্কিন বক্স অফিসে ৩৫ মিলিয়ন এবং ডিজনি প্লাসে তিনদিনে ৩০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যবসাও করেছে। ডোয়াইন জনসন ও এমিলি ব্লান্ট অভিনীত চলচ্চিত্রটি অবশেষে গত ১২ নভেম্বর চীনে মুক্তি পেয়েছে। কিন্তু দেশটির বক্স অফিসে রীতিমতো হোঁচট খেয়েছে চলচ্চিত্রটি – প্রথম দিন আয় করেছে মাত্র ৩.৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম হলিউড রিপোর্টার জানায়, চীনের দর্শকদের মধ্যে জাঙ্গল ক্রুজ বেশ জনপ্রিয়তা কুড়িয়েছে। চীনা কয়েকটি রিভিউ ওয়েবসাইটে জেমস বন্ড সিরিজের ২৫তম চলচ্চিত্র ‘নো টাইম টু ডাই’-এর সমান স্কোর করেছে চলচ্চিত্রটি। তবে এরপরও প্রেক্ষাগৃহে আসন খালি থাকার পেছনে করোনাভাইরাস ছাড়াও পাইরেসি এবং চীনে ডিজনির অপর্যাপ্ত প্রচারণার ভূমিকা আছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। বর্তমানে আন্তর্জাতিক বক্স অফিসে ‘জাঙ্গল ক্রুজ’-এর মোট আয় প্রায় ২১৪ মিলিয়ন ডলার।

চীনে মুক্তি পাওয়া সাম্প্রতিক চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে মুক্তির দিনেই সবচেয়ে বেশি ২০ মিলিয়ন ডলার আয় করেছে মাওইয়ান পিকচার্স নির্মিত ইতিহাসভিত্তিক চলচ্চিত্র ‘দ্য মিডল কিংডম’। ৬.৩ মিলিয়ন ডলার নিয়ে এরপরই ছিলো হংকংয়ের ক্যান্টো-পপ তারকা আনিটা মুইকে নিয়ে এডকো পিকচার্সের চলচ্চিত্র ‘আনিটা’। চীনেই নির্মিত যুদ্ধের চলচ্চিত্র ‘দ্য ব্যাটেল অফ লেইক চ্যাংজিন’-এর প্রথম দিনের আয় ছিলো ৪.৮ মিলিয়ন ডলার, বর্তমানে মোট আয় দাঁড়িয়েছে ৮৮২ মিলিয়ন। আর দেশটিতে হলিউড চলচ্চিত্র ‘নো টাইম টু ডাই’-এর আয় ৫৮ মিলিয়ন ডলার।

সম্প্রতি চীনে হলিউড চলচ্চিত্রের এই বেহাল বাজারের কারণে বড় মার্কিন স্টুডিওগুলো দেশটিতে আপাতত চলচ্চিত্র মুক্তি দিচ্ছে না।

এমন আরও সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

eight + 6 =

সর্বশেষ বিনোদন