‘রেহানা মরিয়ম নূর’-এর জোড়া অর্জন

আজ ১২ নভেম্বর বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহগুলোতে মুক্তি পাচ্ছে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’। আবদুল্লাহ মোহাম্মদ সাদের এই চলচ্চিত্রটি এবারের কান চলচ্চিত্র উৎসবের ‘আঁ সার্তে রিগা’ বিভাগে মনোনীত হয়েছে, মার্কিন অ্যাকাডেমি পুরস্কার অস্কারেও বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করতে অংশ নিচ্ছে। এবার আরও একটি উৎসবে অর্জনের স্বাক্ষর রাখলো এই চলচ্চিত্রটি। এশিয়া প্যাসিফিক স্ক্রিন অ্যাওয়ার্ডসে (অ্যাপসা) শুধু মনোনয়ন নয়, ‘গ্র্যান্ড জুরি প্রাইজ’ জিতেছে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’। পাশাপাশি চলচ্চিত্রের কেন্দ্রীয় চরিত্রের অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধন উৎসবে সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার জিতেছেন।

গতকার ১১ নভেম্বর অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ডের গোল্ড কোস্ট শহরে অ্যাপসার ১৪তম আসরের বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। বিনোদনভিত্তিক ম্যাগাজিন ভ্যারাইটি সূত্রে জানা যায়, এবার অস্ট্রেলিয়ার ‘দ্য ড্রোভারস ওয়াইফ: দ্য লেজেন্ড অব মলি জনসন’ চলচ্চিত্রের সঙ্গে যৌথভাবে গ্র্যান্ড জুরি প্রাইজ পাচ্ছে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’। অ্যাপসা উৎসবের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ এই পুরস্কারের জন্য এশিয়ার নামকরা সব নির্মাতা প্রতিযোগিতা করে থাকেন।

অ্যাপসা উৎসবের এবারের আয়োজনে সেরা অভিনেত্রীর তালিকায় ইজরায়েল, নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া সহ পাঁচটি দেশের অভিনেত্রীরা মনোনয়ন পেয়েছিলেন। তাদের সবাইকে পেছনে ফেলে সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার জিতেছেন ‘রেহানা’ চরিত্রের অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধন। প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, “এর চেয়ে খুশি আর কিছু নেই আমার কাছে। এ আনন্দ আমি বোঝাতে পারব না। অনেক বড় একটা ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে গেলাম। এ অর্জন পুরো টিমের জন্য। বিশেষ করে সিনেমাটির নির্মাতা সাদের কাছে কৃতজ্ঞতা। খুশিটা আমার জন্য আরও বেশি। কারণ, মুক্তির আগের দিন এ সুসংবাদ পেলাম।”

অ্যাপসার এই আসরে এশিয়ার ২৫টি দেশ অংশ নিয়েছিলো। চূড়ান্ত মনোনয়ন পাওয়া ৩৮টি চলচ্চিত্র থেকে বিভিন্ন শাখায় পুরস্কার জেতে ১০টি চলচ্চিত্র। উৎসবে এবার সেরা চলচ্চিত্র নির্বাচিত হয়েছে জাপানি নির্মাতা রিয়ুসুকে হামাগুচির ‘ড্রাইভ মাই কার’। এই চলচ্চিত্রের জন্যই তিনি এবারের কান উৎসবে সেরা চিত্রনাট্যকারের পুরস্কার পেয়েছিলেন।

এমন আরও সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

four × three =

সর্বশেষ বিনোদন