সিটি নির্বাচন ২০২১: কে হচ্ছেন মন্ট্রিয়ালের মেয়র?

মন্ট্রিয়ালসহ পুরো কুইবেক জুড়ে  ২৬৭টি মিউনিসিপাল নির্বাচনের চূড়ান্ত ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হবে আগামী ৬ ও ৭ নভেম্বর।  আগাম  ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে যাতে ১৩% ভোটারেরা ইতোমধ্যে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছে।

কুইবেকের মোট ৮ দশমিক ৬ মিলিয়ন জনসংখ্যার প্রায় অর্ধেক বসবাস করে  মন্ট্রিয়াল সিটিতে।  একাধিক ডিস্ট্রিক্টে বিভক্ত ১৯টি  বু্রো থেকে মোট ১০৩ জন প্রতিনিধি নির্বাচন করবেন। যেখানে ভোটার ১ দশমিক ১ মিলিয়ন।  দুই স্তর বিশিষ্ট প্রশাসনিক ব্যবস্থায় একজন সিটি মেয়র, ১৮ জন বুরো মেয়র (Ville-Marie ছাড়া), ৩৮ জন বুরো কাউন্সিলর এবং ৪৬ জন সিটি কাউন্সিলর নির্বাচিত হবেন। ৬৫ সদস্য বিশিষ্ট সিটি কাউন্সিল গঠিত হবে  নির্বাচিত মেয়র,  ১৮ জন বুরো মেয়র এবং ৪৬ জন সিটি কাউন্সিলরের সমন্বয়ে। আর বুরো প্রশাসন গঠিত হবে নিজ নিজ বুরো থেকে নির্বাচিত বুরো মেয়র  এবং বুরোতে অন্তর্ভুক্ত ডিস্ট্রিক্টগুলো থেকে নির্বাচিত এক বা একাধিক বুরো কাউন্সিলরের সমন্বয়ে।

এবারের নির্বাচনে যে বিষয়গুলি সবচেয়ে বেশি আলোচনায় এসেছে তার মধ্যে আছে বাড়ি মালিকানা ও বাড়ি ভাড়া বাবদ ব্যয়, সবুজ পরিবেশে  সুরক্ষা, ডাউনটাউন তথা বাণিজ্য প্রতিষ্ঠানগুলোর অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধার, SPVM-এর  অর্থায়ন ও নিরস্ত্রীকরণ, মিউনিসিপাল ট্যাক্স, আবর্জনা পরিষ্কার ও তুষার অপসারণ,  নির্মাণ সাইট ব্যবস্থাপনা, মন্ট্রিয়ালকে দ্বিভাষিক শহরের মর্যাদা দান, গৃহহীনতা ও জাতিগত প্রোফাইলিংয়ের বিরুদ্ধে লড়াই এবং গাড়িচালক, সাইকেল চালক ও পথচারীদের মধ্যে সড়ক ভাগাভাগি সংক্রান্ত বিষয় অন্যতম।

মোট  নিবন্ধিত ১৬টি পার্টির  মধ্যে পাঁচটি প্লাটফর্ম মেয়র পদে প্রার্থী দিয়েছে। Projet Montréal, Ensemble Montréal, Mouvement Montréal, Action Montréal এবং Montréal 2021—এই পাঁচটি প্লাটফর্মের  সাথে  স্বতন্ত্ৰ ৫ জন প্রার্থীসহ মোট দশ জন প্রার্থী মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তবে কার্যত প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আছে বর্তমান মেয়র ভ্যালেরি প্লান্টের নেতৃত্বে Projet Montréal, সাবেক মেয়র ডেনিস কোদেরের নেতৃত্বে Ensemble Montréal এবং  জুরিস্ট, কমিউনিটি কর্মী ও সাবেক ক্রীড়াবিদ জ্যামাইকান কুইবেকোয়া বালারামা হোলনেসের নেতৃত্বে Muovement Montréal এই তিনটি প্লাটফর্ম।

“Vote for Change” শ্লোগান এবং ভ্যালেরি প্লান্টের ব্যার্থতা তুলে ধরা ছাড়া ডেনিস কোদেরের প্রচারণায় আর তেমন কোনো আকর্ষণ ছিল না। হেড-টু-হেড বিবেচনায় ডেনিস কোদের তার প্রতিদ্বন্দ্বীদের চেয়ে অনেক এগিয়ে। ৫৮ বছর বয়সী কোদেরের আছে ফেডারেল ইমিগ্রেশন মন্ত্রী হিসেবে দুই বছর, এমপি হিসেবে ১৬ বছর এবং মন্ট্রিয়ালের মেয়র হিসেবে চার বছরের অভিজ্ঞতা। ২০১৭ সালে এক মেয়াদ শেষে ভ্যালেরি প্ল্যান্টের কাছে অপ্রত্যাশিতভাবে হেরে রাজনীতি থেকে বিদায় নিয়েছিলেন  তিনি।  উল্লেখ্য, ১৯৬০ সালের পর কোদেরই এক মেয়াদ শেষে বিদায় নেয়া মন্ট্রিয়ালের একমাত্র মেয়র। তিনি এবং তার দল মনে করে ভ্যালেরির সীমাহীন ব্যর্থতা রয়েছে। তাই তিনি আবার নির্বাচনের মাঠে নামলেন।

ভ্যালেরি প্ল্যান্ট ২০১৭ সালে নারী হিসেবে প্রথম মেয়র হওয়ার আগে ২০১৬ সালে ‘প্রজেক্ট মন্ট্রিয়ল’ এর প্রধান নির্বাচিত হন। ২০১৩ সালে সিটি কাউন্সিলর নির্বাচিত হন তিনি। বলা হয়ে থাকে, ২০১৭ সালে সেসময়ের  মেয়রের অজনপ্রিয়  Formula E car race, মন্ট্রিয়ালের ৩৭৫তম বার্ষিকী উদযাপনে মাত্রাতিরিক্ত ব্যয়, Pit bull কুকুরের উপর নিষেধাজ্ঞা এবং এক সাইক্লিস্টের মৃত্যুকে পুঁজি করে ক্ষমতায় আসেন ভ্যালেরি প্ল্যান্ট। সেই সাথে ছিল মন্ট্রিয়ালের মেট্রো নেটওয়ার্কে গ্রিন, অরেঞ্জ এবং ব্লু লাইনের সাথে পিঙ্ক লাইনের সংযোজনের অঙ্গীকার। সেই নির্বাচনী  অভিযান ছিল অনেকটা ২০১৬ সালের  ডোনাল্ড ট্র্যাম্পের নির্বাচনী  অভিযানের  মতো।  চার বছরের মেয়াদ শেষে “নতুন মা”দের জন্য “Baby Box” ছাড়া এবারের নির্বাচনে সেরকম চমক নেই বলে মনে করছেন অনেক বিশ্লেষক।

অন্যদিকে বালারামা হোলনেস এবং তার প্লাটফর্ম “Mouvement Montreal” প্রথমবারের মতো নির্বাচনে অংশ নিয়ে প্রতিপক্ষের কাছ থেকে সমাদর আদায় করেছেন। মন্ট্রিয়ালকে নিউইয়র্কের আদলে ‘সিটি প্রভিন্স’ হিসেবে প্রতিষ্ঠার দাবি, সিস্টেমটিক রেসিজম, Bill-21 ও বিল-96-এর বিপক্ষে সরাসরি অবস্থান নিয়ে আলোচনায় উঠে আসেন তিনি। মন্ট্রিয়ালের ‘বারাক ওবামা” খ্যাতি পাওয়া anglophone ভোটারদের একটি অংশের রায় পেতে পারেন হোলনেস। আর এতেই আতঙ্কিত  সাবেক মেয়র কোদের শিবির। তাই কোদের বলেছেন ‘Vote for Holness is a vote for Plante”।

একাধিক জরিপে দেখা যাচ্ছে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে Francophone ভোটারের মধ্যে সর্বাধিক জনপ্রিয় ভ্যালেরি প্ল্যান্ট  এবং anglophone ভোটারের মধ্যে জনপ্রিয় সাবেক মেয়র ডেনিস কোদেরের মধ্যে। ২ থেকে ৪ নভেম্বরের মধ্যে অনুষ্ঠিত ৮৫০ জন ভোটার নিয়ে পরিচালিত সর্বশেষ জরিপে দেখা যায় মেয়র পদে প্রজেক্ট মন্ট্রিয়ালের প্ল্যান্ট ৪৬ শতাংশ, এনসেম্বল মন্ট্রিয়ালের কোডের ৪ ০শতাংশ এবং মুভমেন্ট মন্ট্রিলের প্রার্থী বলরামা হলনেস ৫ শতাংশ ভোট পাবেন। তথ্য অনুসারে, দুই শতাংশ ভোটার অন্য দুই ব্যানারে এবং ৭ শতাংশ ভোটার এখনো সিদ্ধান্তহীন। ডেনিস কোডের নিশ্চয়ই আশা করবেন সিদ্ধান্তহীনতায় থাকা ভোটারেরা শেষ পর্যন্ত তাদের ব্যানারে রায় দেবে। শেষ দেখার জন্য ৭ নভেম্বর মধ্যরাত পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

সামগ্রিক নির্বাচনে ফলাফল যাই হোক, Villeray-Saint Michel-Parc-Extension বুরোধীন পার্ক-এক্স ডিস্ট্রিক্ট থেকে সিটি কাউন্সিলর পদে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রার্থী মোহাম্মদ ইউসুফ, St. Henri-E –Petite-Bourgogne–PSC Griffintown থেকে পরস্পরের প্রতিদ্বন্দ্বী নাফিজা রহমান ও রোমেন আলমের মধ্যে যোগ্যতর প্রার্থী এবং মন্ট্রিয়ালের বাইরে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারীর ওপর বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রার্থী ফয়সাল চৌধুরী নির্বাচিত হবেন এ প্রত্যাশা প্রবাসী বাংলাদেশিদের।

এমন আরও সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

19 + 20 =

সর্বশেষ বিনোদন