এবার চাঙ্কি পান্ডের মেয়েকে জিজ্ঞাসাবাদ

আরিয়ান ও অনন্যা

মাদক কাণ্ডে বলিউড তারকা শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খান প্রায় বিশ দিন যাবত মুম্বাইয়ের আর্থার জেলে আটক। এই মামলার সূত্র ধরে বলিউড অভিনেতা চাঙ্কি পান্ডের মেয়ে অনন্যা পান্ডেকে পরপর দুইদিন জিজ্ঞাসাবাদ করেছে ভারতের নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি)। শুধু তাই নয়, তদন্তে আরও এক তারকার সন্তানের সংশ্লিষ্টতার সম্ভাবনার কথা জানা গেছে।

মাদক মামলার তদন্তে আরিয়ানের সঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটে অনন্যার মাদক সংক্রান্ত আলাপচারিতার সন্ধান পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছিলো এনসিবি। এমন অভিযোগের সূত্র ধরেই ২১ অক্টোবর বিকেলে অনন্যা এনসিবির জেরার মুখে পড়েন। ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, গতকাল ২২ অক্টোবর দুপুরে আবারও এনসিবি কার্যালয়ে তাকে ডেকে পাঠানো হয়। টানা চার ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ শেষে সন্ধ্যায় দপ্তর ছাড়েন অনন্যা।

এনসিবির তদন্তকারী কর্মকর্তা বিবি সিং বলেছেন, অনন্যাকে এই মামলার বিষয়ে শুধু জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তার মানে এই নয় যে তিনি অভিযুক্ত। জিজ্ঞাসাবাদে আরিয়ান ও আরেক অভিযুক্ত আরবাজ মার্চেন্টের সঙ্গে তার বন্ধুত্ব, পার্টিতে মাদক নেওয়া হতো কি না, মাদকচক্রের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে খুঁটিনাটি প্রশ্নের উত্তর দেন অনন্যা। পাশাপাশি আরিয়ানের সঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট নিয়েও জানতে চায় এনসিবি।
আরিয়ানকে মাদক সরবরাহের বিষয়টি পুরোপুরি অস্বীকার করে অনন্যা বলেন, তিনি নিজেও কখনোই কোনো প্রকার মাদক সেবন করেননি। মাদক সরবরাহের কথা কেন হোয়াটসঅ্যাপে লিখেছিলেন, এই প্রসঙ্গে অনন্যার দাবি, ‘মজা করে’ এই কথা বলেছেন তিনি – এমনকি গাঁজা যে কোনো প্রকার মাদক তাও জানতেন না।

তবে পরে অনন্যা জানিয়েছেন, আরিয়ানকে মাদক সরবরাহ করে এমন সন্দেহভাজন ‘নামকরা এক ব্যক্তির গৃহকর্মীর’ কথা। তার নাম এখনো প্রকাশ্যে না এলেও তাকে আটক করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

এদিকে জানা গেছে, এবার বলিউড অভিনেতা সঞ্জয় কাপুরের মেয়ে নবাগত অভিনেত্রী সানায়া কাপুরকেও সমন পাঠানো হতে পারে। আরিয়ানকে জিজ্ঞাসাবাদের সময় সানায়ার নাম জানতে পেরেছিলো এনসিবি।

এমন আরও সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

eleven − four =

সর্বশেষ বিনোদন