আরিয়ানের স্বাস্থ্য নিয়ে শঙ্কায় কর্তৃপক্ষ

বলিউড তারকা শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খানের স্বাস্থ্য নিয়ে উৎকণ্ঠার কারণে তার ওপর নজরদারি বাড়িয়েছে কারা কর্তৃপক্ষ।
মাদককাণ্ডে অভিযুক্ত হয়ে ২৩ বছর বয়সী আরিয়ান বর্তমানে মুম্বাইয়ের আর্থার রোড জেলে সাধারণ বন্দী হিসেবে দিন কাটাচ্ছেন। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া জানায়, জেলের পরিবেশ আর খাওয়াদাওয়ার সঙ্গে মানিয়ে নিতে তাকে বেশ বেগ পেতে হচ্ছে। ফলে তার স্বাস্থ্য এবং পরিচ্ছন্নতা নিয়ে বেশ চিন্তিত কর্তৃপক্ষ।
জেলে বসে এই মুহূর্তে আরিয়ানের বাড়ির খাবার পাওয়ার অনুমতি নেই। তাই নিয়ম অনুযায়ী শাহরুখ ১১ অক্টোবর তাকে ৪ হাজার ৫০০ রুপি মানি অর্ডার করেছিলেন বলে কারা কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা যায়। আরিয়ান এ অর্থ জেলের ক্যান্টিনে খাবার কিনতে খরচ করতে পারবেন। কিন্তু শুরু থেকেই খাবারে তিনি অনীহা দেখাচ্ছেন।
জেলে এক বিশেষ ব্যারাকে নিরাপত্তাকর্মীরা আরিয়ানের ওপর নজর রাখছেন বলে জানা গেছে। বর্তমানে তার কাউন্সিলিং চলছে, আর এতে যথেষ্ট সহযোগিতাও করছেন তিনি। তবে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর (এনসিবি) জিজ্ঞাসাবাদ ছাড়া কারোর সঙ্গে তিনি কথা বলছেন না। মামলার অন্য অভিযুক্তদের সঙ্গে দেখা করতেও আগ্রহী নন। তার পক্ষে আইনি লড়াই চালাচ্ছেন মুম্বাইয়ের শীর্ষস্থানীয় আইনজীবী সতীশ মানশিন্ডে ও অমিত দেশাই।
উল্লেখ্য, ২ অক্টোবর মুম্বাইয়ে বিলাসবহুল কর্ডেলিয়া প্রমোদতরিতে এক মাদক পার্টি থেকে আরিয়ান সহ আটজনকে আটক করে এনসিবি। পরোয়ানায় লেখা হয়, প্রমোদতরির টার্মিনাল থেকে নানা রকম মাদকদ্রব্য ও নগদ ১,৩৩,০০০ টাকা উদ্ধার হয়েছে। আরিয়ানের লেন্স রাখার বাক্সেও মাদক পাওয়া গেছে বলে জানায় এনবিসি। তবে আরিয়ান জানিয়েছেন, অতীতে কখনও তিনি মাদক নেননি – আর ভবিষ্যতেও নেবেন না। তবে এনসিবির দাবি, গত চার বছর ধরে মাদক নিতেন আরিয়ান।

এমন আরও সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

fifteen + 12 =

সর্বশেষ বিনোদন