বিয়ে ভাঙলেও নাকি বন্ধুত্ব থাকবে

বিবাহবিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিলেন দক্ষিণী চলচ্চিত্রের তারকা দম্পতি সামান্থা রুথ প্রভু ও নাগা চৈতন্য। গত ২ অক্টোবর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক যৌথ বিবৃতিতে বিচ্ছেদের ঘোষণা দেন সামান্থা ও নাগা। ইনস্টাগ্রামে সামান্থা লেখেন, “আমাদের সব শুভাকাঙ্ক্ষীর উদ্দেশে বলছি, অনেক আলোচনা ও চিন্তাভাবনার পর সিদ্ধান্ত নিয়ে আমরা স্বামী-স্ত্রী দুজন আলাদা পথ বেছে নিয়েছি। আমরা ভাগ্যবান যে এক দশকেরও বেশি সময় ধরে আমাদের যে বন্ধুত্ব ছিল, যা আমাদের সম্পর্কের মূল ভিত্তি, আমরা বিশ্বাস করি, সবসময় আমাদের মধ্যে সেই বন্ধন থাকবে। আমাদের ভক্ত, শুভাকাঙ্ক্ষী ও গণমাধ্যমের বন্ধুদের অনুরোধ, এ রকম একটা কঠিন সময়ে আমাদের পাশে থাকুন এবং আমাদের নিজের মতো থাকার সুযোগ দিন। সহযোগিতার জন্য ধন্যবাদ।’’ টুইটারে একই বক্তব্য পোস্ট করেছেন নাগা।

ভারতীয় বিনোদনভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ফিল্মবিট জানায়, কয়েক মাস আগেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিজের নাম থেকে ‘আক্কিনেনি’ পদবি সরিয়ে ফেলেছিলেন সামান্থা। বিয়ের পর তিনি অভিনয় চালিয়ে যেতে চাইলেও পর্দায় তার খোলামেলা উপস্থিতি পছন্দ করছিলেন না স্বামী নাগা চৈতন্য ও শ্বশুর নাগার্জুনা। দুই পরিবারের মধ্যে সমঝোতার সব প্রচেষ্টাই ব্যর্থ হয়, আর অবশেষে এই বিচ্ছেদ।

জানা যায়, বিবাহবিচ্ছেদের ফলে নাগা চৈতন্যের কাছ থেকে খোরপোশ বাবদ পাওয়া ২০০ কোটি রুপি প্রত্যাখ্যান করেছেন সামান্থা। বলেছেন, এই বিয়েতে যে ভালোবাসা ও সহযোগিতা আশা করেছিলেন, তা তিনি পাননি।

২০১০ সালে তেলেগু ভাষার ‘ইয়ে মায়া চেসাবে’ চলচ্চিত্রে প্রথম একসঙ্গে কাজ করেন সামান্থা ও নাগা। ২০১৭ সালের ৬ অক্টোবর তারা বিয়ে করেন।
শীঘ্রই তামিল ভাষার ‘কথু ভাকুলা রেন্দু কাধাল’ ও ‘শকুন্তলম’ চলচ্চিত্রে দেখা যাবে সামান্থাকে। আর সাই পল্লভীর সঙ্গে নাগার ২৪ সেপ্টেম্বর মুক্তি পাওয়া ‘লাভ স্টোরি’ চলচ্চিত্রটি ব্যাপক সাফল্য পেয়েছে।

এমন আরও সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

5 × four =

সর্বশেষ বিনোদন