ফেরদৌসী মজুমদার ও ‘ইচ্ছে নাটাই’

অভিনেত্রী ও নাট্য আন্দোলন ব্যক্তিত্ব ফেরদৌসী মজুমদারকে নিয়ে নির্মিত হচ্ছে প্রামাণ্যচিত্র ‘ইচ্ছে নাটাই’।

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির পৃষ্ঠপোষকতায় ফেরদৌসী মজুমদারকে নির্মিত ‘ইচ্ছে নাটাই’ প্রামাণ্যচিত্রটি পরিচালনা করছেন আবীর শ্রেষ্ঠ। ফেরদৌসী মজুমদারের বাড়ি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ফুলার রোড এবং শহীদ মিনারে এর শুটিং হয়েছে।

দৈনিক দ্য ডেইলি স্টারকে ফেরদৌসী মজুমদার বলেন, “এটা আমার জন্য অনেক বড় সম্মান। অনেক বড় প্রাপ্তি। মানুষের ভালোবাসার চেয়ে বড় প্রাপ্তি আর কি হতে পারে?”

নিজের ছেলেবেলার গল্প দিয়ে ‘ইচ্ছে নাটাই’ শুরু হবে বলে জানান ফেরদৌসী। এই প্রামাণ্যচিত্রে তাকে নিয়ে কথা বলবেন রামেন্দু মজুমদার, রাইসুল ইসলাম আসাদ, লিয়াকত আলী লাকী, কেরামত মওলা, নার্গিস আক্তার ও ত্রপা মজুমদার।

ফেরদৌসী বলেন, “পরিচালক হিসেবে আবীর শ্রেষ্ঠ অত্যন্ত পরিশ্রমী। খুব যত্ন নিয়ে কাজটি করছে। আমি ওর কাজে সন্তুষ্ট। আমার ওপর প্রচুর পড়াশোনা করে কাজটি করছে। আমার টেলিভিশন জীবন, মঞ্চ নাটক, শিক্ষকতা, পরিবার কোনো কিছুই বাদ যাচ্ছে না এই প্রামাণ্যচিত্রে। কাজটি করতে সময় লাগছে। তারপরও খুশি আমি।”

টেলিভিশনে ‘সংশপ্তক’ নাটকের ‘হুরমতি’ চরিত্রে অভিনয় করে ফেরদৌসী মজুমদার ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন। তবে মঞ্চের প্রতি আলাদা টান আছে তার। ‘পায়ের আওয়াজ পাওয়া যায়’, ‘কোকিলারা’, ‘এখনো ক্রীতদাস’, ‘এখনো দুঃসময়’ সহ কয়েকটি মঞ্চনাটক তাকে খ্যাতির শীর্ষে এনেছে। আগামী ১ অক্টোবর নিজ দল ‘থিয়েটার’-কে নিয়ে মঞ্চে ফিরছেন ‘পায়ের আওয়াজ পাওয়া যায়’ নাটকে। তিনি বলেন, “মঞ্চই আমার কাছে বেশি প্রাধান্য পায়। পঞ্চাশ বছরেরও বেশি সময় ধরে মঞ্চে কাজ করছি। কতদিন পর মঞ্চে ফিরব ভাবতেই ভালো লাগছে!”

‘মনে পড়ে’, ‘আমার অভিনয় জীবন’, ‘যা ইচ্ছা তাই’ নামে ফেরদৌসী মজুমদারের তিনটি বই আছে। নতুন লেখালেখির বিষয়ে তিনি বললেন, “ডায়েরিতে একটু একটু লিখছি।”

পূর্বের খবরগুলোমঞ্চে ফিরছেন আফজাল
পরবর্তী খবরগুলোচলচ্চিত্রের গানে আবার হাবিব

এমন আরও সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

8 − 2 =

সর্বশেষ বিনোদন