ইউটিউবে ‘রহমান মিউজিক শিটস’ 

সারা বিশ্বে যার লাখ লাখ ভক্ত, যার সংগীতে মুগ্ধ অগণিত সংগীতপ্রেমী—সেই লোকটিই স্বল্পভাষী ও প্রচারবিমুখ। বলছি, সংগীতে অস্কারজয়ী একমাত্র ভারতীয় সংগীত পরিচালক এআর রহমানের কথা। তার এবং তার সংগীতের মূল্যায়ন সহজ নয়। সহজ করতেই নির্মাতা উমেশ আগরওয়াল আজ ২৬ আগস্ট তার ‘ওটুইন্ডিয়া’ ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি দিলেন ‘রহমান মিউজিক শিটস’ শিরোনামের একটি নতুন সিরিজ। রহমানকে নিয়ে এর আগে উমেশ ‘জয় হো’ শিরোনামের তথ্যচিত্র তৈরি করেছেন।

পুরো এক বছরজুড়ে এই সিরিজ চলবে। রহমানের সঙ্গে কাজ করেছেন এমন চলচ্চিত্র পরিচালক ও শিল্পীদের সাক্ষাৎকারভিত্তিক এই সিরিজ এআর রহমান এবং তার সংগীতকে বুঝতে দর্শকদের সাহায্য করবে বলে আশা করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে সিরিজের একাধিক টিজার মুক্তি পেয়েছে। সিরিজে কথা বলেছেন প্রখ্যাত চলচ্চিত্র নির্মাতা মনি রত্নম। ১৯৯২ সালে মনির ‘রোজা’ সিনেমায় প্রথম চলচ্চিত্র পরিচালক হিসেবে কাজ করেন রহমান। সেই ছবি যেমন সুপারহিট হয়েছিল—গানগুলোও স্মরণীয় হয়ে আছে। মনি সেসময়ের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেছেন। রহমানের সংগীত ভাবনা নিয়েও তিনি কথা বলেছেন।

আরো কথা বলেছেন চলচ্চিত্র নির্মাতা সুভাষ ঘাই। তার ‘তাল’ সিনেমায় অবিস্মরণীয় সব গান করেছেন রহমান। সিরিজে আরো দেখা যাবে গুলজার, আশুতোষ গোয়ারিকর, শেখর কাপুর, হরিহরণসহ অনেককে। আশুতোষ রহমানকে নিয়ে প্রথম কাজ করেন ‘স্বদেশ’ সিনেমায়। সেই অভিজ্ঞতা তিনি কোনো একটি পর্বে তুলে ধরেছেন।

সংগীত ভুবনে এআর রহমান কাটিয়েছেন তিন দশক। আকাশচুম্বী তার সাফল্য। চলচ্চিত্র ও মঞ্চে মন মাতানো সংগীত পরিবেশনের জন্য রহমানকে ‘মাদ্রাজের মোৎসার্ট’ হিসেবে সম্বোধন করা হয়। ২০০৯ সালে ‘স্লামডগ মিলিয়নিয়ার’ সিনেমার জন্য গোল্ডেন গ্লোব, দুটি অস্কার ও দুটি গ্র্যামি পুরস্কার জয় করেন তিনি। এখন পর্যন্ত আর কোনো ভারতীয় সংগীতশিল্পী অস্কার অর্জন করেননি।

বিখ্যাত টাইম ম্যাগাজিনের করা বিশ্বের সবচেয়ে প্রভাবশালী ব্যক্তিত্বের তালিকায় এআর রহমান স্থান পেয়েছেন। ইংল্যান্ডের সংগীতবিষয়ক ম্যাগাজিন ‘সংলাইনস’ তাকে আগামী দিনের বিশ্ব সংগীতের ‘আইকন’ হিসেবে অভিহিত করেছে।

এমন আরো সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

3 − 2 =

সর্বশেষ বিনোদন