লতাকে ‘অসুন্দর’ বলেছিলেন রাজ কাপুর

ভারতীয় চলচ্চিত্র জগতের নন্দিত কণ্ঠশিল্পী লতা মঙ্গেশকরকে ‘অসুন্দর’ বলেছিলেন কিংবদন্তী অভিনেতা রাজ কাপুর।

১৯৭৮ সালে রাজ কাপুর অভিনীত ‘সত্যম শিবম সুন্দরম’ ছবিতে গান গেয়েছিলেন লতা। ২০০২ সালে প্রকাশিত রাজ কাপুরের মেয়ে ঋতু নন্দার বই ‘রাজ কাপুর স্পিকস’-এ এ চলচ্চিত্র প্রসঙ্গে একটি ঘটনার কথা উল্লেখ করা হয়। রাজ কাপুরকে উদ্ধৃত করে বলা হয়, তিনি এমন এক গল্প নিয়ে কাজ করতে চেয়েছিলেন, যেখানে একজন পুরুষ এক নারীর অপূর্ব কণ্ঠস্বর শুনে মুগ্ধ হলেও আদতে দেখতে ভালো নন ওই নারী। এই নারীর চরিত্রে তাঁর পছন্দ ছিলো লতা মঙ্গেশকর।

সাংবাদিক বীর সাংভির নিজের আত্মজীবনীতে সত্যম শিবম সুন্দরম সম্পর্কে রাজ কাপুরের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারের কথা বলেন। তাঁর বরাতে, সাক্ষাৎকারে রাজ কাপুর বলেন, ‘একটা পাথর হাতে নিন। তাতে কিছু ধর্মীয় চিহ্ন রাখুন এবং তাতেই তা ঈশ্বরে পরিণত হবে। আপনি কীভাবে কোন বিষয় দেখেন, এই দৃষ্টিভঙ্গিটাই গুরুত্বপূর্ণ। ধরুন, আপনি সুন্দর একটি গলা শুনতে পেলেন। কিন্তু পরে আবিষ্কার করলেন যে এটি একটি অসুন্দর মেয়ের গলা’।

ভালোবাসা সম্পর্কের বিশুদ্ধতার ওপর নির্ভর করে, শারীরিক সৌন্দর্যের ওপর নয় – এ বিশ্বাস থেকেই এ গল্প নিয়ে কাজ করতে চেয়েছিলেন রাজ। তবে সৌন্দর্যের প্রসঙ্গ আসতেই রেগে গিয়েছিলেন লতা।

বীর সাংভি দাবি করেন, এই ছবির বিষয়ে আগেও রাজ জানিয়েছিলেন লতার শারীরিক সৌন্দর্যের এবং গলার স্বরের মধ্যে যে ‘বৈপরীত্য’, এ বিষয়টাই ভীষণভাবে টেনেছিল তাঁকে।

জানা যায়, লতা মঙ্গেশকর প্রথমে এ চলচ্চিত্রে অভিনয় করতে রাজি হলেও পরে এ প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেন। এমনকি এই সিনেমায় আর গান গাইতেও অস্বীকৃতি জানান তিনি। পরে তাঁর সঙ্গে বিষয়টি মিটমাট করে নেন রাজ।

এমন আরো সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

three × 1 =

সর্বশেষ বিনোদন