অভিযানের পর পরীমনি আটক

পরীমনি। ফাইল ছবি (সংগৃহীত)

আজ ৪ আগস্ট বিকেলে বাংলাদেশের চিত্রনায়িকা পরীমনির বনানীর বাসায় অভিযান চালয় র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটিলিয়ন (র‍্যাব)। সন্ধ্যার দিকে পরীমনিকে আটক করা হয় এবং তার বাসা থেকে মাদকদ্রব্য উদ্ধারের কথাও সাংবাদিকদের জানায় র‍্যাব।

অভিযানের সময় ফেসবুক লাইভে এসে পরীমনি নিজেই অভিযানের কথা জানান। লাইভে তাকে পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করতেও দেখা যায়। চিত্রনায়িকা অভিযোগ করেন যে, তাকে কেউ তুলে নিয়ে যাচ্ছে এবং তিনি অনিরাপদ বোধ করছেন। প্রথমে তিনি দরজা খুলতে রাজি হননি। তিনি লাইভে সবার কাছে সাহায্য চান এবং বলেন  ‘আমি ব্রেইন স্ট্রোক করে মরে যাবো’।

এই অভিনেত্রীর পদে পদে বিতর্ক। এর আগে ১৩ জুন তিনি ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে অভিযোগ করেছিলেন, তাকে ‘রেপ এবং হত্যা করার চেষ্টা করা হয়েছে।’ পরে রাতে সাংবাদিকদের ডেকে তিনি বলেন, ১০ জুন দিবাগত রাত ১২টার দিকে তিনি কস্টিউম ডিজাইনার অমি ও মেকআপ আর্টিস্ট জিমির সঙ্গে আশুলিয়ার একটি ক্লাবে যান। ক্লাবে কয়েকজন ব্যক্তির সঙ্গে পরীমনির পরিচয় করিয়ে দেন অমি। তাদেরই একজন ব্যবসায়ী নাসির ইউ মাহমুদ। তিনি পরীমনিকে লাথি মারেন এবং জোর করে পরীর মুখে মদের গ্লাস চেপে ধরেন। এ ঘটনায় মামলাও হয়।

পরীমনিকে আটকের আগে গত ২৯ জুলাই আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কৃত নেতা ও ব্যবসায়ী হেলেনা জাহাঙ্গীরকে এবং ২ আগস্ট মডেল ফারিয়া মাহবুব পিয়াসা ও মৌ আক্তারকে আটক করা হয়।

এমন আরো সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

15 − one =

সর্বশেষ বিনোদন