২০২২-এ দশটি সিনেমা বানাবে ‘এইচবিও ম্যাক্স’

ভিডিও স্ট্রিমিং প্লাটফর্মের ব্যবসায় হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চলছে। খবর বের হলো, এ বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে ভালো করেনি ‘নেটফ্লিক্স’। প্রত্যাশা অনুয়ায়ী বাড়েনি তাদের গ্রাহক সংখ্যা। বলা হচ্ছে, ২০১৩ সালের পর সবচেয়ে খারাপ সময় যাচ্ছে ‘নেটফ্লিক্স’-এর। আরো ভালো করতে নানা পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। তাই তো ভিডিও গেম যোগ হতে যাচ্ছে ‘নেটফ্লিক্স’-এ। এর একদিন পরই খবর এলো, ‘নেটফ্লিক্স’-এর অন্যতম কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বী ‘এইচবিও ম্যাক্স’—তার গ্রাহকদের জন্য ২০২২ সালেই তৈরি করবে দশটি সিনেমা!

মার্কিন সংবাদমাধ্যম ভ্যারাইটি বলছে, ‘এইচবিও ম্যাক্স’-এর মাতৃপ্রতিষ্ঠান ‘ওয়ার্নার ব্রোস’ কমপক্ষে দশটি সিনেমা তৈরি করবে শুধুমাত্র ‘এইচবিও ম্যাক্স’-এর গ্রাহকদের জন্য। ‘ওয়ার্নার ব্রোস’-এর সিইও জ্যাসন কিলার ২২ জুলাই খবরটি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, হলে সিনেমা মুক্তি দেয়া কমানো হবে। তিনি আরো জানিয়েছেন, ‘এইচবিও ম্যাক্স’ আগামী বছর অনেক পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে যাবে।

নতুনদের মধ্যে ‘এইচবিও ম্যাক্স’ অনেকের চেয়ে ভালো করছে। এবছরের জানুয়ারি থেকে মার্চের মধ্যে তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন ১০ দশমিক ৭ মিলিয়ন নতুন গ্রাহক। আরো ২ দশমিক ৮ মিলিয়ন যোগ হবে জুনের মধ্যে। আশা করা হচ্ছে, বছর শেষে এর সর্বমোট গ্রাহকসংখ্যা ৭০ থেকে ৭৩ মিলিয়নে গিয়ে দাঁড়াবে। যদিও গ্রাহকসংখ্যার দিক থেকে এখনো শীর্ষস্থানে ‘নেটফ্লিক্স’। তার মোট গ্রাহকসংখ্যা ২০৯ মিলিয়ন।

বিশ্বমিডিয়া জগতের অন্যতম মুগল ‘ওয়ার্নারমিডিয়া’ গত মে মাসেই ‘ডিস্কভারি’ টেলিভিশন কোম্পানি কেনার ঘোষণা দেয়।  নতুন কোম্পানির নামও ঠিক করা হয়েছে, ‘ওয়ার্নার ব্রোস ডিস্কভারি’। বাকি আছে কিছু কাগুজে কাজ। ‘ডিস্কভারি’ কেনা হয়েছেই ওটিটি প্লাটফর্ম ব্যবসা বাড়াতে। ‘ওয়ার্নারমিডিয়া’র আরেক প্রতিষ্ঠান সিএনএন। গত ১৯ জুলাই ভিডিও স্ট্রিমিং প্লাটফর্ম আনার ঘোষণা দেয় বিশ্বের অন্যতম প্রধান এই সংবাদ নেটওয়ার্ক। তারা আনছে—‘সিএনএন প্লাস’। ২০২২ সাল থেকে ‘সিএনএন প্লাস’ সম্প্রচার শুরু করবে।

‘নেটফ্লিক্স’ ও ‘ডিজনি প্লাস’-এর চেয়ে ‘এইচবিও ম্যাক্স’-এর চার্জ বেশি। তার প্যাকেজ শুরুই হয়েছে ৯ দশমিক ৯৯ মার্কিন ডলার থেকে। তারপরও ‘এইচবিও ম্যাক্স’-এর গ্রাহক বাড়ছে। এর অন্যতম কারণ তার কন্টেন্ট অনেক। বিশ্বের অন্যতম প্রধান চলচ্চিত্র প্রযোজক ‘ওয়ার্নার ব্রোস’ ‘এইচবিও ম্যাক্স’-এর মাতৃপ্রতিষ্ঠান। সুতরাং তাদের সিনেমাগুলো প্রিমিয়ার হয় এখানে। এই সুবিধা ‘অ্যামাজন প্রাইম’ বা ‘নেটফ্লিক্স’-এর নেই। আটঘাট বেঁধেই মাঠে নেমেছে ‘ওয়ার্নার মিডিয়া’। তারা চায়, ২০২৫ সালের মধ্যে ‘এইচবিও ম্যাক্স’-এর গ্রাহকসংখ্যা ১২০ থেকে ১৫০ মিলিয়নে পৌঁছাবে।

এমন আরও সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

one × five =

সর্বশেষ বিনোদন