জালিয়াতি করেছেন সালমান খান!

বলিউডে ভাইজান খ্যাত সালমান খান এবং তার বোন আলভিরা খান অগ্নিহোত্রীসহ আটজনের বিরুদ্ধে জালিয়াতির অভিযোগ উঠেছে।

বলিউড হাঙ্গামার খবর, ১৩ জুলাই (মঙ্গলবার) এর মধ্যে তাদের কাছে জবাব চাইবে মুম্বাই পুলিশ। অভিযুক্ত সকলেই ‘বিয়িং হিউম্যান ফাউন্ডেশন’-এর সঙ্গে সম্পৃক্ত। এই প্রতিষ্ঠানটি একটি দাতব্য প্রতিষ্ঠান।

প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, অরুণ গুপ্ত নামের এক ব্যবসায়ী তাদের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ করেছেন। তার অভিযোগ, বিয়িং হিউম্যান জুয়েলারি ব্যান্ডের জন্য সম্প্রতি তিনি তিন কোটি রুপি দিয়ে একটি বিশেষ শোরুম খোলেন। সালমানের এই সংস্থার পক্ষ থেকে তাকে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেয়া হয়েছিল। এমনকি এই শোরুমে রাখার জন্য সামগ্রীও পাঠানোর কথা ছিল। কিন্তু অনেকটা সময় চলে গেলেও এখনো কোনো সামগ্রী পাঠানো হয়নি।

এই প্রসঙ্গে চণ্ডীগড় থানার এসপি কেতন বনশাল ভারতীয় গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘১৩ জুলাই পর্যন্ত তাদের সময় দেয়া হয়েছে। কোনো অপরাধ সংগঠিত হয়ে থাকলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

জালিয়াতি প্রসঙ্গে ব্যবসায়ী অরুণ গুপ্ত জানিয়েছেন, প্রায় দেড় বছর আগে তিনি এই শোরুম খোলেন। বেশ কয়েকবার কোম্পানির কর্তাব্যক্তিদের সঙ্গে তার কথাও হয়েছে। শুধু তাই নয়, তিনি দাবি করেছেন সালমান খানের সঙ্গে দেখা ও কথাও বলেছেন তিনি। সালমান তাকে আশ্বাস দিয়েছিলেন। কিন্তু জিনিস পাঠানোর কথা বারবার বলা হলেও তারা কথা রাখেনি। ফলে তিনি আইনি ব্যবস্থা নিয়েছেন।

তবে সালমান খান ও তার বিয়িং হিউম্যান ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে এখনো কোনো মন্তব্য করা হয়নি। ২০০৭ সালে সালমান খান এই সংস্থাটি প্রতিষ্ঠা করেন। সংস্থাটি ভারতের পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর শিক্ষা ও স্বাস্থ্য নিয়ে কাজ করে।

পূর্বের খবরগুলোআসিফ আকবরের ত্রিশ
পরবর্তী খবরগুলোতৌসিফের ‘স্বপ্নের নায়িকা’

এমন আরও সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

two × four =

সর্বশেষ বিনোদন