কে হবেন ‘মাস্টারজি’

গত বছর ৩ জুলাই বলিউড থেকে বিদায় নিয়েছিলেন নৃত্যশিল্পী সরোজ খান। তাকে ভালোবেসে সকলে ‘মাস্টারজি’ বলে সম্বোধন করত। তার প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বায়োপিক নির্মাণের ঘোষণা দিল প্রযোজনা সংস্থা টি-সিরিজ।

সংস্থার কর্ণধার ভূষণ কুমার সরোজ খানকে ভারতের প্রথম মহিলা কোরিওগ্রাফার হিসেবে সম্বোধন করে বলেন, তার জীবনী পর্দায় তুলে ধরাটা টি-সিরিজের জন্য গর্বের বিষয়। অন্যদিকে, বায়োপিক ঘোষণার পর থেকেই সবার আগ্রহ বেড়ে গেছে। সবার একই প্রশ্ন, কাকে অভিনয় করতে দেখা যাবে সরোজ খানের চরিত্রে? এদিকে সরোজ মানেই মাধুরী এবং শ্রীদেবী। তাদের ভূমিকাতে কে থাকবেন?- এই প্রশ্নের অবতারণাও হয়েছে বহুবার। তবে খুব শিগগিরই এ নিয়ে আলোচনা আসবে বলে জানা গেছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম বলিউড হাঙ্গামার প্রতিবেদন অনুযায়ী, এক সাক্ষাৎকারে সরোজ খানের মেয়ে সুকাইনা খান মায়ের বায়োপিক নির্মাণ প্রসঙ্গে জানান, ‘আমার মা’কে গোটা ইন্ডাস্ট্রি সম্মান জানায়, আমরা খুব কাছ থেকে তার স্ট্রাগল দেখেছি, লড়াইটা অনুভব করেছি। আমি আশা করছি এই বায়োপিক তার সেই লড়াইয়ের সঙ্গে সুবিচার করতে পারবে। ভূষণজি তার ওই কাহিনিটা তুলে ধরতে পারবেন, পরিবারের প্রতি তার ভালোবাসা, নাচের প্রতি, ইন্ডাস্ট্রির প্রতি তার নিষ্ঠা ফুটিয়ে তুলতে পারবেন’।

সরোজ খানের আসল নাম নির্মলা নাগপাল। ১৯৪৮ সালে ২২ নভেম্বর চলচ্চিত্র জগতে তার ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন মাত্র ৩ বছর বয়সে। বি সোহানলালের কাছ থেকে নাচ শিখতেন। যখন তার বয়স মাত্র ১৩ বছর সেই সময় তিনি ৪১ বছর বয়সী ‘মাস্টারজি’ সোহানলালকে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন। বিবাহিত সোহানলাল সেই সময় চার সন্তানের পিতা ছিলেন।

বিবাহের এক বছরের মাথায় অর্থাৎ সরোজের যখন ১৪ বছর তখন তিনি প্রথমবার মা হন। এরপর ৩ বছরের মাথায় ২০১৭ সালে সংসার জীবনের ইতি টানেন সরোজ।

এরপর সন্তানদের নিয়ে কিশোরী সরোজ খানের লড়াই শুরু হয়। পরবর্তীতে ১৯৭৫ সালে সরোজ খান একজন ব্যবসায়ী, সর্দার রোশন খানের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তাদের কন্যা সন্তান সুকাইনা খান।

সরোজ খান ‘গীতা মেরা নাম’ (১৯৭৮) সিনেমা দিয়ে একজন স্বতন্ত্র কোরিওগ্রাফার হিসাবে কাজ করেন। এরপর থেকেই তাঁর কোরিওগ্রাফি পরিচালকদের মন জয় করতে থাকে, ডাক পান অজস্র নতুন নতুন ছবিতে। ‘মিস্টার ইন্ডিয়া’র পর রাতারাতি সারা দেশে জনপ্রিয়তা লাভ করেছেন।

শ্রীদেবী, মাধুরী দীক্ষিত থেকে কারিনা কাপুর, ঐশ্বরিয়া রায়, শিল্পা শেঠি, কাজল, কঙ্গনা রনৌত, আলিয়া ভাট সবাই নেচেছেন তার কোরিওগ্রাফিতে। আশি, নব্বইয়ের দশক পেরিয়ে ২০১৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘কলঙ্ক’ ছবিতে সাফল্যের সঙ্গে সুপার ডুপার হিট গান কোরিওগ্রাফি করেছেন সরোজ খান। তার ঝুলিতে রয়েছে অজস্র সম্মান। সর্বোপরি তিনি ঘর করে রয়েছেন কোটি কোটি হিন্দি সিনেমাপ্রেমীর হৃদয়ে।

এমন আরও সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

five × four =

সর্বশেষ বিনোদন