কান উৎসবে নির্বাচন আর বাণিজ্যিক প্রদর্শন এক নয়

কান চলচ্চিত্র উৎসবের ‘আন সার্টেন রিগার্ড’ (আঁ সাহত রিগা) ক্যাটাগরিতে এবার নির্বাচিত হলো বাংলাদেশের সিনেমা ‘রেহানা মরিয়ম নূর’। উৎসবের ৭৪তম আসরে সম্মানের সঙ্গে যাচ্ছে আবদুল্লাহ মোহাম্মদ সাদ পরিচালিত এই সিনেমা। এই বিভাগে এবছর মুক্তি পাওয়া ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ ছাড়াও আরো ১৭টি চলচ্চিত্র মনোনয়ন পেয়েছে। কান চলচ্চিত্র উৎসবের ওয়েবসাইটে এবিষয়ে একটি ঘোষণা রয়েছে। ২০১৬ সালে প্রথম সিনেমা ‘লাইভ ফ্রম ঢাকা’ দিয়ে সাদ নিজের অবস্থান পোক্ত করেছিলেন। ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ এই পরিচালকের দ্বিতীয় সিনেমা।

আগেই স্পষ্ট করা ভালো, এভাবে নির্বাচিত হওয়া আর উৎসবে হল ভাড়া করে সিনেমা চালানো এক কথা নয়। অনেকেই এই সম্মানজনক উৎসবে হল ভাড়া করে নিজেদের সিনেমা প্রদর্শন করেন। যা যেকেউ করতে পারেন। সেখানে অফিসিয়াল নির্বাচন-অনির্বাচনের বালাই নেই। এর আগে এই উৎসবে অনন্ত জলিলের ‘নিঃস্বার্থ ভালোবাসা’ এবং জাজ মাল্টিমিডিয়ার ‘পোড়ামন ২’ বাণিজ্যিকভাবে মুক্তি দিয়ে প্রচার করা হয়েছিল যে অফিসিয়ালি নির্বাচিত হয়েছে- যা একেবারেই বিভ্রান্তিকর ও অসত্য। একইভাবে তৌকির আহমেদের ‘অজ্ঞাতনামা’ এবং অমিতাভ রেজার ‘আয়নাবাজি’ও এই উৎসবে প্রদর্শিত হয়েছিল। তৌকির বা অমিতাভ কেউই তাদের সিনেমা কানে ‘অফিসিয়ালি সিলেক্ট’ হয়েছে বলে দাবি করেননি।

সাদের অর্জনটি বিরল। নতুন ইতিহাস গড়লো তার নতুন সিনেমা। এর আগে একাধিকবার বাংলাদেশের চলচ্চিত্র কান উৎসবে গেছে, যেমন- তারেক মাসুদের ‘মাটির ময়না’। তবে কখনোই বাংলাদেশি কোনো সিনেমা কান উৎসবের মূল ক্যাটাগরিতে সরাসরি অংশগ্রহণের সুযোগ পায়নি। সেদিক থেকে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ রেকর্ড গড়লো।

২০০২ সালে এই উৎসবের ৫৫তম আসরে ‘মাটির ময়না’ প্যারালাল অংশের ‘ডিরেক্টর’স ফোর্টনাইট’ বিভাগে অংশ নিয়েছিল। কিন্তু কান চলচ্চিত্র উৎসবের মূল প্রতিযোগিতার বিভাগ ৪টি, ১. কম্পিটিশন, ২. আন সারর্টেন রিগার্ড, ৩. আউট অব কম্পিটিশন এবং ৪. কান প্রিমিয়ার। আগেই বলেছি, সাদের ছবি ‘আন সার্টেন রিগার্ড’ বিভাগে নির্বাচিত হয়েছে। যা বাংলাদেশের চলচ্চিত্র-ইতিহাসে প্রথম। এর আগে ১৯৯৪ সালে ‘আঁ সাহত রিগা’ বিভাগে সত্যজিৎ রায়ের ‘উত্তরণ’ নির্বাচিত হয়েছিল।

রেহানা মরিয়ম নূর নামে একজন সহকারী অধ্যাপকের জীবন সংগ্রামের গল্পই সিনেমায় ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। সেই প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন আজমেরী হক বাঁধন। এছাড়াও এই ছবিতে রয়েছেন আফিয়া জাহিন জাইমা, কাজী সামি হাসান, আফিয়া তাবাসসুম বর্ণ, ইয়াছির আল হক, সাবেরী আলম প্রমুখ। ছবিটির সিনেমাটোগ্রাফি করেছেন তুহিন তমিজুল, প্রোডাকশন ডিজাইন করেছেন আলী আফজাল উজ্জ্বল এবং সাউন্ড ডিজাইনে ছিলেন শৈব তালুকদার। ছবিটি সহ-প্রযোজনা করেছে সেন্সমেকারস প্রোডাকশন। সিনেমার চিত্রনাট্য করেছেন সাদ নিজেই।

৩৬ বছর বয়সী সাদের জন্ম চট্টগ্রামে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে পড়ালেখার পাট শেষ করেছেন। ছাত্রাবস্থায় টিভি নাটকের চিত্রনাট্য লেখা শুরু করেন। বেশ কয়েকটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রও নির্মাণ করেছেন তিনি। তার প্রথম সিনেমা ‘লাইভ ফ্রম ঢাকা’ সিঙ্গাপুর আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে সেরা পরিচালক ও অভিনেতার পুরস্কার অর্জন করে।

এবারের কান চলচ্চিত্র উৎসব চলবে ৬ জুলাই থেকে ১৭ জুলাই পর্যন্ত।

এমন আরও সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

2 × two =

সর্বশেষ বিনোদন