অক্টোপাসের বন্ধু পেল অস্কার

বৈচিত্রে ভরপুর এই পৃথিবীতে হরহামেশাই ঘট চাঞ্চল্যকর সব ঘটনা। প্রাণীদের বিভিন্ন প্রজাতি, যারা একে অপরকে শত্রু মনে করে তাদের মধ্যেও বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে। এবার এমন একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে নির্মিত একটি সিনেমা ৯৩ তম একাডেমি অ্যাওয়ার্ডসে সেরা প্রামাণ্যচিত্রের পুরস্কার বাগিয়ে নিল। সিনেমাটির নাম ‘মাই অক্টোপাস টিচার’। নাম শুনেই হয়তো বুঝতে পেরেছেন যে এই সিনেমাটিতে একজন মানুষের সাথে একটি অক্টোপাসের বন্ধুত্বের গল্প বলা হয়েছে। ঠিক তাই। এমন একটি মানবিক গল্পের আখ্যানভিত্তিক তথ্যচিত্রটি যৌথভাবে নির্মাণ করেছেন পিপ্পা এরলিক ও জেমস রিডস। সিনেমাটি নেটফ্লিক্সে পাওয়া যাচ্ছে।

দীর্ঘ আট বছরের সাধনায় প্রাপ্ত তিন হাজার ঘণ্টার ফুটেজ থেকে নির্মিত ৮৫ মিনিটের এই সিনেমা অনেকগুলো চলচ্চিত্র উৎসবে পুরস্কৃত, মনোনীত ও প্রদর্শিত হয়েছে, তারমধ্যে বাফটায় সেরা প্রামাণ্যচিত্র পুরস্কার অন্যতম।

সিনেমাটির প্রযোজক ক্রেইগ ফস্টার এক সাক্ষাৎকারে বলেন ‘আমি দীর্ঘদিন ধরে এই অবিশ্বাস্য প্রাণীটিকে দেখার সুযোগ পেয়েছি। ও পুরোপুরি আমার ওপর আস্থা রেখেছিল। কারণ, আমি ওদের জগতের বাসিন্দা হয়ে গিয়েছিলাম। আমাকেও ওদের মতোই একজন মনে করত। প্রথম দিকে সে আমাকে ভয়ংকর মনে করলেও পরে আমরা একদম বন্ধু হয়ে যাই।’

মানুষ আর অক্টোপাশের বন্ধুত্বের গল্প ছাপিয়েও সিনেমাটি বলেছে জলবায়ু পরিবর্তন ও প্রাকৃতিক ভারসাম্যের কথা।

এমন আরও সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

two − one =

সর্বশেষ বিনোদন