চুমু খাননি সালমান!

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা সালমান খান। এই অভিনেতার ৩২ বছর ক্যারিয়ারে সিনেমায় কোনো নায়িকাকে কখনো চুম্বন করতে দেখা যায়নি। তবে তার এই প্রথা কি তিনি এবার ভাঙলেন! সম্প্রতি সালমান খানের নতুন সিনেমা ‘রাধে- ইউর মোস্ট ওয়ান্টেড ভাই’ এর ট্রেইলার মুক্তি পেয়েছে। এই সিনেমার একটি দৃশ্যে অভিনেতাকে দেখা যাচ্ছে তার হাঁটুর বয়সি নায়িকা দিশা পাটানিকে চুমু দিতে। দীর্ঘ তিন দশকের ক্যারিয়ারে এই প্রথমবার এমন ভাবে তাকে দেখে ভক্তদের প্রতিক্রিয়ার শেষ নেই।

অভিনেতার ভক্তরা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রমাণ দিয়ে যাচ্ছেন চুমু খাননি সালমান। অভিনেতার এই দৃশ্যকে কিছুতেই যেনো মেনে নিতে পারছে না অভিনেতার ভক্তরা। কেউ কেউ বলছেন ভিডিওটি ভালো করে দেখলে বোঝা যাবে তার মুখে সেলোটেপ লাগানো ছিল, চুমু খাননি সালমান!

সালমানের ভক্তরা সেই ছবি ব্যাপকভাবে টুইটারে শেয়ার করেছেন। একজন লেখেন – ‘সালমান বলল, আমি দিশাকে কিছুতেই চুমু খাবো না। অমনি, প্রভু দেবা দিশার ঠোঁটে সেলোটেপ মেরে দিল। অন্য ব্যক্তি লেখেন- ভ্যার্জিনিটি নিয়ে কোনোও রিস্ক নিতে রাজি নন, সালমান খান। তাই চুমু খাওয়ার প্রশ্নই আসে না। এই নিয়ে যেনো মিমের ছড়াছড়ি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

অনস্ক্রিনে চুমুর দৃশ্য করতে দেখা যায় না কেনো তাকে ? এই প্রশ্নের করা জবাবে ইন্ডিয়া টুডে-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে অভিনেতা সালমান খান জানান, ‘আমরা যখন পরিবারের সঙ্গে ছবি দেখি, এবং সেখানে কোনও চুম্বনের দৃশ্য চলে আসে তখন সকলেই অস্বস্তিতে পরে এদিক ওদিক তাকায়। মেয়েনে পেয়্যারর কিয়া-তেও অন্তরঙ্গ দৃশ্য সরাসরি দেখানো হয়নি। আমি যখন ছবিতে অভিনয় করি, আমি চাই সেটা সপরিবারে দেখা হোক। সবচেয়ে বেশি যেটা ঘটে সেটা আমি আমার শার্ট খুলে ফেলি। হয়তো সংলাপের মধ্যে কিছু দুষ্টামি মাখানো জোক থাকে কিন্তু আপনি কখনোই আমাকে লাভ মেকিং সিনের অংশ হতে দেখবেন না।’

এমন আরও সংবাদ

রিপ্লাই দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

13 − four =

সর্বশেষ বিনোদন