বাবার উৎসাহে মেয়েদের সাফল্য

কম্পটনের বাসিন্দা রিচার্ড উইলিয়ামসের দুই মেয়ে বর্তমানে বিশ্বসেরা দুই মার্কিন টেনিস তারকা ভেনাস উইলিয়ামস ও সেরেনা উইলিয়ামস। কৃষ্ণাঙ্গ রিচার্ড উইলিয়ামের পূর্বপুরুষ ছিলেন দক্ষিণ আমেরিকার অধিবাসী, যেখানে তাদের বর্ণবাদের শিকার হতে হয়েছিলো। আর এখন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সাফল্যের শিখরে থেকেও এখনো ভেনাস আর সেরেনাকে বর্ণবাদী আচরণের শিকার হতে হয়। এমন বিরূপ পরিস্থিতিতেও বাবার প্রশিক্ষণে কীভাবে পৃথিবীর সেরা দুই টেনিস খেলোয়াড় হয়ে উঠলেন দুই বোন, সে গল্প নিয়ে নির্মিত চলচ্চিত্র ‘কিং রিচার্ড’ গত ১৯ নভেম্বর মুক্তি পেয়েছে।

সংকীর্ণতার বাধা পেরিয়ে মেয়েদের উত্থানের পথে বাবার ভূমিকা নিয়ে ‘কিং রিচার্ড’ চলচ্চিত্রের গল্প। চলচ্চিত্রে দেখা যায়, বাবা নিয়মিত দুই মেয়েকে বাড়ির কাছের টেনিস কোর্টে নিয়ে যান। রোদে পুড়ে, বৃষ্টিতে ভিজে কঠোর পরিশ্রমে তারা ক্রমশ পরিণত হয়ে ওঠে। উৎসাহ, ভালোবাসা আর ধৈর্যের সঙ্গে মেয়েদের খেলোয়াড়ি সত্ত্বাকে পুরোপুরি বিকশিত করার চেষ্টা চালিয়ে যান রিচার্ড, মেয়েদের মনোবল বাড়িয়ে তোলেন। যুক্তরাষ্ট্রের ‘বর্ণবাদ’ সমস্যাকে পুঁজি করে অগ্রাধিকার পাওয়ার কোনো চেষ্টাই তাদের ছিলো না। বরং রিচার্ড মেয়েদের শিখিয়েছেন অপমান অগ্রাহ্য করে লক্ষ্যে অটল থাকতে, যাতে বিজয় হাতের মুঠোয় ধরা দেয়।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম দ্য হিল জানায়, রিচার্ড উইলিয়ামসের বয়স এখন প্রায় ৮০ বছর। চলচ্চিত্রে মধ্যবয়সী রিচার্ড চরিত্রে অভিনয় করেছেন হলিউড তারকা উইল স্মিথ।

এমন আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ বিনোদন