বচ্চন পারিবারের পুরোহিতকে মারধর করল পুলিশ

বলিউডের শাহেনশাহ অমিতাভ বচ্চনের পারিবারিক পুরোহিতের সঙ্গে ইউপি পুলিশের বাক-বিতণ্ডাকে কেন্দ্র করে ২০ জুন বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয় বিন্দ্যাচল মন্দির চত্বরে। এদিন উত্তর প্রদেশের বিন্দ্যাচলের বিন্দ্যাবাসিনী নামক এক মন্দিরে বেশ কয়েকজন পুলিশকর্মীর সঙ্গে বাক-বিতণ্ডা একপর্যায়ে হাতাহাতিতে গিয়ে ঠেকে। পুলিশকর্মীরা ঘিরে ধরে পুরোহিত অমিত পান্ডেকে এবং সিঁড়িতেই তাকে মারধর করে। এমন একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে ইতিমধ্যে।

লাইভ হিন্দুস্তানের প্রতিবেদন অনুসারে, চান্দুলি জেলা শাসক ও তার পরিবারকে এসকর্ট করে মন্দিরে নিয়ে গিয়েছিলেন পুলিশবাহিনী। সেখানে লকডাউন থাকা স্বত্বেও পূজা-অর্চনা করা হয়। জেলাশাসক পূজা দিচ্ছেন দেখে, পুরোহিতরাও দেবীর কাছে পূজো দিতে আগ্রহ প্রকাশ করেন। কিন্তু তাদের সেই দাবি মানতে অস্বীকার করে ঘটনাস্থলে উপস্থিত পুলিশকর্মীরা। এ নিয়ে তর্ক শুরু হয় দু’পক্ষের এবং একপর্যায়ে মারধরও শুরু হয়।

এদিন বেল ঠিক ১১টায় বিন্দ্যবাসিনী মন্দিরে পৌঁছান চন্দেলির জেলাপ্রশাসক ও তার পরিবার। এরপর দর্শনের পর্ব শেষ হয়। বচ্চন পরিবারের পুরোহিতও তার সহকারী নিয়ে পূজা-অর্চনার জন্য মন্দিরে পৌঁছান। কিন্তু লকডাউনের জন্য তাদের আটকে দেয়া হয়। এ নিয়েই শুরু হয় ঝামেলা।

অমিত পান্ডে শুধু বচ্চন পরিবারে নয়, গান্ধী পরিবারেও নিয়মিত পূজার দায়িত্ব পালন করে আসছেন। অমিতের ভাই সুমিত অভিযোগ করেছেন তাদের ইচ্ছেকৃত ভাবেই মারধর করেছে পুলিশ এবং মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে দেয়ার চেষ্টাও করেছে। এ নিয়ে আক্ষেপের সুরে তিনি বলেন, ‘সমাজে আমাদের একটা মান-ইজ্জত আছে, সকলে সম্মান করে আমাদের।’

এমন আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ বিনোদন