পরীমনির পাশে দাঁড়ালেন নচিকেতা

ঢালিউডের চিত্রনায়িকা পরীমনিকে সমর্থন দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী নচিকেতা।
৫ সেপ্টেম্বর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেইসবুকে নচিকেতার ‘এত সাহস কার’ গানটি শেয়ার করেছিলেন পরীমনি। আর এর প্রেক্ষিতেই পরীমনির উদ্দেশে নচিকেতার খোলা বার্তা, “আপনাকে পূর্ণ সমর্থন জানাই। সব সময় পাশে আছি।“ নচিকেতার গাওয়া গানটি লিখেছেন বাংলাদেশের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারজয়ী গীতিকবি জুলফিকার রাসেল।
আনন্দবাজার অনলাইন সূত্রে জানা যায়, প্রতিকূলতার মুখেও অটল মনোভাব ধরে রাখায় পরীমনিকে বাহবা জানিয়েছেন নচিকেতা। তার ভাষায়, “আমার ব্যক্তিগতভাবে পরীমনিকে ভাল লাগে। ভীষণ সাহসী। যেটা বলা উচিত সেটা সবার সামনে বলার ক্ষমতা রাখেন। দেশের পুঁজিবাদের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন অভিনেত্রী। যা খুব সহজ নয়। যা করছেন বেশ করছেন তিনি।”
পরীমনির ওয়ালে নিজের গান প্রসঙ্গে নচিকেতা বলেন, “আমি জানি, পরীমনি আমার গান শোনেন। পছন্দও করেন। আমি ওঁর অনুপ্রেরণা জেনে ভালো লাগছে। সবার বোঝা উচিত, অভিনেত্রীরও ‘না’ বলার অধিকার আছে। সেই ‘না’ উচ্চারণ করেই তিনি আজ এত বিপাকে। এটা ওর দোষ নয়, সমাজের দোষ।… সমাজের এই ধারা সব জায়গাতেই সমান। শুধু বাংলাদেশ নয়, ভারতের ছবিও এক। নইলে নুসরাত জাহানকে নিয়ে এত বিতর্ক তৈরি হতো না।“ উল্লেখ্য, সম্প্রতি বিবাহবহির্ভূতভাবে সন্তান জন্মদানের কারণে ব্যাপক আলোচিত-সমালোচিত হয়েছেন টলিউড অভিনেত্রী নুসরাত জাহান।
এই প্রসঙ্গে ষাটের দশকের জনপ্রিয় অভিনেত্রী মালা সিনহার উদাহরণ টানেন নচিকেতা। বলেন, “সেই সময় ওকে শুনতে হয়েছিল, ওর যাবতীয় উপার্জন নাকি পতিতাবৃত্তি করে হয়েছে। সমাজ বরাবর নিজের জোরে ওপরে উঠতে থাকা নারীদের গায়ে কালি মাখিয়ে তাদের নিচে নামিয়েছে।“
সম্প্রতি ঢাকা বোট ক্লাবে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে বেশ কয়েকজন শিল্পপতি ও ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে মামলা করেন পরীমনি। এরপর ৪ আগস্ট রাতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে নিজেই গ্রেফতার হন। ২৭ দিন কারাভোগের পর ১ সেপ্টেম্বর জামিন পেয়ে বনানীর বাসায় ফেরেন তিনি। পরীমনির জানান, তার জন্য এ জায়গাটি আর নিরাপদ নয়। নিরাপত্তা পেতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশে আবেদন জানান তিনি।

এমন আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ বিনোদন