নির্মাতার মৃত্যুতেও থামেনি ‘কালবেলা’

মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে নির্মাতা সাইদুল আনাম টুটুল নির্মাণ করছিলেন তার স্বপ্নের চলচ্চিত্র ‘কালবেলা’। ২০১৮ সালে চলচ্চিত্রের শুটিং শুরু করেন, কিন্তু কাজের শেষ পর্যায়ে এসে তিনি মারা যান। তাই বলে চলচ্চিত্রটির নির্মাণ বন্ধ হয়ে যায়নি। তার পরিবার এবং সংশ্লিষ্টদের যৌথ উদ্যোগে ‘কালবেলা’র নির্মাণকাজ শেষ হয়েছে। ডিসেম্বরের ১৫ তারিখের মধ্যেই চলচ্চিত্রটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে বলে জানিয়েছেন এর নির্বাহী প্রযোজক হুমায়ুন কবীর শুভ।

টুটুল প্রায় সব কাজ গুছিয়ে দিয়ে গেছেন বলে চ্যানেল আই অনলাইনকে জানান শুভ। তিনি বলেন, “পরিকল্পনা মাফিক ‘কালবেলা’র ক্যামেরার কাজ তিনি সম্পন্ন করে গিয়েছিলেন, শেষ দিকে আমরা শুধু দু’একদিন প্যাচওয়ার্ক করেছি। তাও উনার তৈরী করা স্টোরি লাইন দেখেই সেটা করেছি।’’ নির্মাতার মৃত্যুর পর তার স্ত্রী ও চলচ্চিত্রের প্রযোজক মোবাশ্বেরা খানম চলচ্চিত্রের দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নেন।

‘কালবেলা’র ট্রেলার মুক্তির পর থেকেই প্রশংসিত হচ্ছে বলেও জানান শুভ। বলেন, “সবচেয়ে আনন্দের বিষয়টি হলো, ‘কালবেলা’র ট্রেলার দেখে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর থেকে আমাদের সাথে যোগাযোগ করা হয়েছে। তারা নিজ উদ্যোগে ‘কালবেলা’র বিশেষ প্রদর্শনীর আয়োজন করতে চান। সেটা হয়তো ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহেই হবে।’’

২০১৭-১৮ অর্থবছরে সরকারি অনুদান পাওয়া ‘কালবেলা’ চলচ্চিত্রের গল্প যুদ্ধপরবর্তী একটি কথ্যকাহিনি থেকে নেয়া। চলচ্চিত্রটির প্রধান দুই চরিত্র মতিন ও সানজিদার ভূমিকায় যথাক্রমে শিশির ও তাহমিনা অথৈ অভিনয় করবেন। টুটুলের নিজস্ব প্রযোজনা সংস্থা ‘আকার’ থেকে চলচ্চিত্রটি মুক্তি পাবে।

মুক্তিযোদ্ধা টুটুল ১৯৭৯ সালে ‘সূর্য দীঘল বাড়ী’ চলচ্চিত্রের জন্য শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র সম্পাদকের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন। ‘আধিয়ার’ খ্যাত এই নির্মাতা পাশাপাশি ছিলেন শিক্ষক। এছাড়াও তিনি টেলিভিশনের জন্য অনেক নাটক এবং চার শতাধিক বিজ্ঞাপনচিত্র নির্মাণ করেছেন।

এমন আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ বিনোদন